Cvoice24.com

সাঙ্গু নদীতে নিখোঁজ দুই ভাই-বোনের মরদেহ উদ্ধার

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:০০, ২৫ ডিসেম্বর ২০২১
সাঙ্গু নদীতে নিখোঁজ দুই ভাই-বোনের মরদেহ উদ্ধার

সাঙ্গু নদীতে নিখোঁজ আহনাফ আকিব (২২) এবং আদ‌নীন (১৯)।

বান্দরবানের রোয়াংছড়ির তারাছার বাধরা ঝর্ণার পা‌শে সাঙ্গু নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়া দুই পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। নিহতরা হলেন— আহনাফ আকিব (২২) এবং আদ‌নীন (১৯)। তারা সম্পর্কে ভাই-বোন।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় প্রথমে আদ‌নীনের এবং দুপুর ২টায় আহনাফের মরহেদ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বেতছড়া আর্মি ক্যাম্পের ইনচার্জ সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার আবু আসাদ। 

তিনি জানান, দশ পর্যটক নৌকা‌য় ক‌রে বান্দরবা‌ন থেকে সাঙ্গু নদী পথে বেতছড়া বেড়া‌তে আসেন। গতকাল শুক্রবার বেতছড়ার বাধরা ঝর্ণার পাশে নদী‌তে গোসল কর‌তে নেমে নদীর স্রোতে ভেসে যায় আট পর্যটক। এর মধ্যে গতকালই মারিয়া নামে এক পর্যটককে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় দুই পর্যটক নিখোঁজ ছিলেন। তারা সম্পর্কে ভাই-বোন ছিলেন। পরে আজ (শনিবার) সকাল সাড়ে ৯টায় প্রথমে বোনের এবং দুপুর ২টায় ভাইয়ের মরহেদ উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, আদনীন ও আহনাফ আকিব নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ফতুল্লার ইচদারগ্রামের ব্যবসায়ী জহিরুল ইসলামের সন্তান। এরমধ্যে আদনীন নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী এবং আহনাফ ব্র্যাক ইউনির্ভাসিটির কম্পিউটার সায়েন্সের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

উল্লেখ্য, গত বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ থেকে ১০ জনের একটি দল বান্দরবান ভ্রমণে আসেন। তারা বান্দরবানের বিভিন্ন পর্যটন স্পট ঘুরে দেখেন। তারা নৌকা নিয়ে গতকাল শুক্রবার বিকেলে রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের তারাছা ঝর্ণায় পৌঁছায়। ঝর্ণা দেখার পরে তারা সবাই সাঙ্গু নদীতে গোসল করতে নামেন। মারিয়া নদীতে তলিয়ে গেলে তাকে বাঁচাতে আহনাফ ও আদনীন এগিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে থাকা স্থানীয়রা মারিয়াকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠালে সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এসময় থেকে আহনাফ ও আদনীন নিখোঁজ ছিলেন।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়