Cvoice24.com

থানচিতে হঠাৎ ডায়রিয়ার প্রকোপ, মৃত্যু ৪

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:৪২, ১২ জুন ২০২২
থানচিতে হঠাৎ ডায়রিয়ার প্রকোপ, মৃত্যু ৪

থানচির কিছু দুর্গম এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপে শিশুসহ মোট ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বান্দরবানের থানচি উপজেলার রেমাক্রি ইউনিয়নের কিছু দুর্গম এলাকায় হঠাৎ করেই ডায়রিয়ার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে গত কয়েকদিনে শিশুসহ মোট ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন থানচি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. ওয়াহিদুজ্জামান মুরাদ। 

নিহতরা হলেন-রেমাক্রী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড মেন থাং পাড়ার কার্বারী মেনথাং ম্রো (৪৯), নারিচা পাড়ার বাসিন্দা লংঞী ম্রো (৪৫), ইয়ং নং পাড়ার বাসিন্দা ক্রাইয়ং ম্রো (৬০) এবং সিংচং পাড়ার বাসিন্দা প্রেণময় ম্রো (১১)।

রোববার (১২ জুন) দুপুরে এ তথ্য জানান তিনি। ডা. ওয়াহিদুজ্জামান মুরাদ আরও বলেন, রেমাক্রি ও তিন্দু ইউনিয়নে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। ৩টি মেডিকেল টিম রেম্রাক্রি, বড়মদক এবং আন্দারমানিকের একটু আগে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়াও বিজিবির মাধ্যমে ওইসব এলাকায় ওষুধপত্র পাঠানো হয়েছে।

তবে থানচির দুর্গম এলাকায় কতজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, এলাকাগুলো দুর্গম। মোবাইল নেটওয়ার্ক নেই। মেডিকেল টিম ফিরে আসলে বলা যাবে। তবে এখন পর্যন্ত ৬০ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর জানি।

এ প্রসঙ্গে রেমাক্রী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুই শৈ থুই মার্মা বলেন, বর্ষা মৌসুম হওয়ার কারণে দুর্গম এলাকায় বিশুদ্ধ পানির সংকট বেশি। ঝিড়ি-ঝর্ণা-খালের পানি দূষিত হয়ে গেছে। ময়লা পানি পান করে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে মনে হয়।

এ ব্যাপারে বান্দরবান সিভিল সার্জন নিহার রঞ্জন নন্দী বলেন, খুব দুর্গম এলাকা হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা খুব খারাপ। আমরা ডায়রিয়া আক্রান্ত এলাকায় বিজিবির সঙ্গে কাজ করছি। বিনামূল্যে ওষুধপত্র দেওয়া হচ্ছে। বেশির ভাগই ঝিড়ির ময়লা পানি খাওয়ার কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। এখন পর্যন্ত হাসপাতালগুলোতে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ১২ জনের মতো ভর্তি আছে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়