Cvoice24.com

হাটহাজারীতে প্রেমিক-প্রেমিকা সন্দেহে ভাই-বোনকে নির্যাতন, অভিযুক্তদের ছিনিয়ে নিল আ’লীগের কর্মীরা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:৪৩, ১৫ আগস্ট ২০২২
হাটহাজারীতে প্রেমিক-প্রেমিকা সন্দেহে ভাই-বোনকে নির্যাতন, অভিযুক্তদের ছিনিয়ে নিল আ’লীগের কর্মীরা

প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে কোচিংয়ে যাওয়ার পথে ভাই-বোনকে আটকে রেখে নির্যাতন করেছে দুই বখাটে। আটকে থাকা সন্তানদের ছাড়াতে এসে বখাটেদের হাত থেকে রেহাই পায়নি বাবাও। উল্টো প্রমাণ করতে বলেন আটকে রাখা দুজন তার ছেলেমেয়ে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে হাটহাজারী উপজেলার ধলই ইউনিয়নের ধলই বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে এ দুই বখাটেকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে হাটহাজারী থানা পুলিশের একটি টহল টিম। বিষয়টি সমাধানের জন্য ইউনিয়ন পরিষদে তাদের নেওয়া হলে সেখান থেকে হামলা চালিয়ে দুই বখাটেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার অনুসারিরা। এসময় রুস্তম নামে পুলিশের এক কনস্টেবলও আহত হয়।

হাটহাজারী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সোহেল সিভয়েসকে বলেন, ‘দুই ভাই-বোন মিলে কোচিংয়ে যাচ্ছিল। এমন সময় দুই বখাটে তাদের প্রেমিক যুগল সন্দেহে আটক করে নানাভাবে নির্যাতন করে। এসময় তারা চাঁদা দাবি করে ভুক্তভোগীদের বাবাকে ফোন করে। পরে ফোন পেয়ে বাবা ঘটনাস্থালে গিয়ে সন্তানদের আটকে রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে উল্টো তারা জিজ্ঞেস করে ভুক্তভোগীরা তার ছেলে-মেয়ে সেটা নিশ্চিত করে প্রমাণ দিতে পারবে কিনা! পরে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে তাকেও মারধর করে বখাটেরা। আমরা ঘটনাস্থলে গেলে বখাটেরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে আবারও তাদের মধ্যে একজন এলে ভুক্তভোগীদের বাবা বলেন এই ছেলেটাই! তখন তাকে আটক করি। অন্যদিকে আবার স্থানীয় চেয়ারম্যান কল দিয়ে জানান তারাও একজনকে আটক করেছে। পরে সেখানে থেকে তাকে আনতে গেলে সেসময় ওই চেয়ারম্যান জানান বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদে সমাধানের। এসময় ইভটিজিংয়ের সঙ্গে জড়িতদের ছিনিয়ে নিতে আসে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতার অনুসারিরা। তাদের ছাড়িয়ে নিতে পরিকল্পিতভাবে ইউপি কার্যালয়ে হামলা চালায় এবং বিচার প্রার্থী বাবা-ভাইকে মারধর করে। এ হামলার ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে এবং অভিযুক্ত আটক করতে অভিযান অব্যাহত আছে।’

-সিভয়েস/এমএম

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়