Cvoice24.com
corona-awareness

লোহাগাড়ায় হেফজখানার এক শিশুকে নিয়মিত বলাৎকার করছিল এই হুজুর

লোহাগাড়া প্রতিনিধি, সিভয়েস

প্রকাশিত: ১২:৫০, ২৭ মে ২০২১
লোহাগাড়ায় হেফজখানার এক শিশুকে নিয়মিত বলাৎকার করছিল এই হুজুর

হেফজখানার শিক্ষক আব্দুল্লাহ মুজাহিদ

লোহাগাড়ার বড়হাতিয়ায় এক শিশু শিক্ষার্থীকে বলৎকারের অভিযোগে আব্দুল্লাহ মুজাহিদ (২২) নামের এক হুজুর তথা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে আটক করা হলেও বৃহস্পতিবার (২৭ মে) আদালতে সোর্পদ করা হয়।

মুজাহিদ উপজেলার বড়হাতিয়া চাকফিরানী দুর্লভের পাড়ার মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন প্রকাশ ওরফে ডিস দেলোয়ারের ছেলে। তিনি দুর্লভের পাড়া হেফজখানা ও এতিমখানায় শিক্ষকতা করেন। 

জানা যায়, উপজেলার বড়হাতিয়া দুর্লভের পাড়া হেফজখানা ও এতিমখানায় হেফজ বিভাগে কুরআন হেফজ করছে ৯ বছরের এক শিশু। কিন্তু মাদ্রাসার শিক্ষক মুজাহিদ সেই ছাত্রকে বেশ কিছুদিন ধরে তার কক্ষে নিয়ে বলৎকার করে আসছিল। সেই সঙ্গে বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য বার বার হুমকিও দেন। 

এর মধ্যে ওই শিক্ষার্থী হেফজখানায় যেতে না চাইলে কারণ জানতে চাওয়ায় বাড়িতে বিষয়টি খুলে বলে। ঘটনাটি জানাজানি হলে ছাত্রের পরিবার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ জানায়। 

এ বিষয়ে বড়হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুনাইদ চৌধুরী বলেন, ‘বলৎকারের শিকার শিশুটির ওপর মাদ্রাসা শিক্ষকের অমানবিক আচরণ এবং শারীরিকভাবে নির্যাতন খুবই জঘন্য ও  দুঃখজনক। ওই শিশুর পরিবার বিষয়টি আমাকে জানালে আমি তাৎক্ষণিক লোহাগাড়া থানায় অবহিত করি। পুলিশ দ্রুতই মাদ্রাসার ওই শিক্ষককে আটক করে।’ 

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাকের হোসাইন মাহমুদ বলেন, ‘ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনাটি জানানোর সঙ্গে সঙ্গে মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। এ ব্যাপারে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ এর(১) ধারায় তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেওয়ার জন্য তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।’

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়