Cvoice24.com

মিরসরাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতার পরিবারের পাশে এলিট

মিরসরাই প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫:০২, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
মিরসরাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতার পরিবারের পাশে এলিট

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার দুই নম্বর হিংগুলী ইউনিয়নে গত সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হন যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশ (২৮)।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সেই নিহত  যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে শোক সন্তপ্ত পরিবারকে স্বান্তনার দেন আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

নিহত আকাশের মা নিয়াজ মোর্শেদ এলিটকে বলেন, ‘আকাশ নিরপরাধ যুবলীগ নেতা। মুলত সে একজন জনপ্রিয় যুবলীগ নেতা হওয়ায় খুনের স্বীকার হয়।

এসময় নিয়াজ মোর্শেদ এলিট উপস্থিত সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘দল ক্ষমতায় আছে দীর্ঘ এক যুগের বেশি। এই সময়ে ও তার আগে বাংলাদেশ যুবলীগ বারবার প্রমাণ দিয়েছে তার শক্তি ও সাহসের কথা। খুব খারাপ লাগে, যখন দেখি আমার যুবলীগের ভাইয়ের রক্তে লাল হয়ে যায় বাংলার মাটি। ভাবতে অবাক লাগে। এটা তো হওয়ার কথা না। কেন এমন হচ্ছে। আমাদের ভাবা দরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশকে কুপিয়ে খুন করেছে একদল দুর্বৃত্ত। এর ন্যায় বিচার চাই। পাশাপাশি শোকগ্রস্ত পরিবারের পাশে থাকার জন্য আমি সবাইকে আহ্বান জানাই। আজ নিহত যুবলীগ নেতা আকাশের বাড়িতে তার পরিবারের সাথে দেখা করেছি। তাদের সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা আমার নাই। তবু আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব আমি তাদের পাশে থাকব ইনশাআল্লাহ।’ 

এ সময় ওনার সঙ্গে নিহত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের মা, ভাই, ভগ্নীপতি, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগ নেতা ও বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি আছিফ রহমান শাহীন, ইমতিয়াজ অভি, শওকত আজিম রিংকু, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ আল নোমান, উপ মুক্তিযোদ্ধা ও গণযোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম রানা, উপ কর্মসূচি বিষয়ক সম্পাদক আহসান উদ্দিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আশরাফসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা নিয়াজ মোর্শেদ এলিট নিহত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের কবর জিয়ারত এবং ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
 
প্রসঙ্গত, গত সোমবার সন্ধ্যায় হিঙ্গুলী ইউনিয়নের চিনকিরহাট বাজারে আকাশের ফার্নিচার দোকানে ঢুকে একদল দুর্বৃত্ত এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তাকে আহত করে। স্থানীয় লোকজন প্রথমে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। রাত ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়