Cvoice24.com

দুই মামলায় সাড়ে তিন হাজার আসামি

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৪৫, ১৮ এপ্রিল ২০২১
দুই মামলায় সাড়ে তিন হাজার আসামি

বাঁশখালীতে এস আলমের মালিকানাধীন কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিক আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে পাঁচজন নিহতের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার `হামলাকারী' শ্রমিকদের নামে দুইটি মামলা দায়ের হয়েছে। বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষ একটি আর পুলিশ একটি মামলা করে। দুই মামলায় ২২ জনের নাম উল্লেখসহ অন্তত অজ্ঞাত সাড়ে ৩ হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে। 

রবিবার (১৮ এপ্রিল) ভোরে চট্টগ্রামের বাঁশখালী থানায় এ মামলাগুলো দায়ের করা হয়।

থানার এক এসআই বাদি হয়ে পুলিশের দায়িত্ব পালনে বাধা, হামলার অভিযোগ দায়ের করা মামলায় অজ্ঞাত আড়াই হাজার জনকে আসামি করা হয়। অন্যদিকে এসএস পাওয়াপ্ল্যান্টের চীফ কোর্ডিনেটর ফারুক আহমেদ ২২ জনের নাম উল্লেখ করে আজ্ঞাত আরও ১ হাজার ৫০ জনকে আসামি করে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুরের একটি মামলা করেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাঁশখালী থানা ওসি শফিউল কবীর বলেন, মামলা হয়েছে। এখন তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, শ্রমিকদের আন্দোলন ও হামলার ঘটনার জন্য স্থানীয়রা ২০১৬ সালের আন্দোলনের হোতা গণ্ডমারার চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা লিয়াকত আলীর ইন্ধন থাকার কথা বললেও তাকে আসামি করা হবে কিনা তার জন্য রাতভর দফায় দফায় বৈঠক করেও সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি পুলিশ। অবশেষে ভোর রাতে তাকে বাদ দিয়েই এই মামলা দুটি করে। 

শ্রমিক নিহত ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় গতকাল থেকে এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট বন্ধ রয়েছে। চীনা নাগরিকরা নিরাপদে রয়েছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে বলেও জানান ওসি বাঁশখালী। 

এরআগে গত ১৭ এপ্রিল সকাল থেকে ১২ দফা দাবিতে আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণে পুলিশকে ডাকে বিদ্যুৎ নির্মাণ কর্তৃপক্ষ। আন্দোলন বেলা পৌনে ১২টার দিকে উত্তপ্ত হয়ে উঠে যখন পুলিশ বিক্ষোভকারীদের জোর করে দমাতে যায়। এরপরই শ্রমিকরা একত্রিত হয়ে পুলিশের ওপর হামলা করলে পুলিশও তাদের ওপর গুলি চালায় এতে ঘটনাস্থলেই চারজন ও চমেক হাসপাতালে একজন নিহত হয়। আহত হয় অন্তত আরও ১৭ জন। এছাড়া আহত হয় তিন পুলিশ সদস্যও। 

গতকাল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চার সদস্যের এবং পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। জেলা প্রশাসনের কমিটিকে তিন কর্মদিবসের মধ্যে এবং পুলিশের তদন্ত কমিটিকে সাত কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়