Cvoice24.com

বিয়ের চার মাসের মাথায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

মিরসরাই প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৪:৩৫, ১ আগস্ট ২০২১
বিয়ের চার মাসের মাথায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

মিরসরাইয়ে বিয়ের চার মাসের মাথায় গলায় ফাঁস দিয়ে মাইমুনা মাহি (১৯) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। শনিবার (৩১ জুলাই) বিকেলে উপজেলার সাহেরখালীর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ভোরের বাজার এলাকার বেলু ড্রাইভার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মাইমুনা খৈয়াছরা ইউনিয়নের নিজতালুক এলাকার মেহেরুল মুন্সী বাড়ির মৃত নিজাম উদ্দিনের মেয়ে। তিনি নিজামপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, গত ৪ মাস পূর্বে মাইমুনার সঙ্গে সাহেরখালী ইউনিয়নের ভোরের বাজার এলাকার ভেলু ড্রাইভার বাড়ির মো. ইউনুস মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন রিপনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর প্রথম কয়েক মাস ভালোভাবে সংসার চলছিল। তাঁর পড়াশোনা নিয়ে গত কিছুদিন ধরে শাশুড়ির সাথে মনমালিন্য চলে আসছে। এ কারণে স্বামী রিপনকে নিয়ে মাইমুনা আলাদ হয়ে যায়। শনিবার দুপুরে স্বামী-স্ত্রী দুইজনই একসঙ্গে দুপুরের খাবার খান। বিকালে স্বামী রিপন আছরের নামাজ পড়ে এসে দেখেন দরজা খোলা এবং ভেতরে গিয়ে দেখেন ঘরের তীরের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

নিহত মাইমুনার বোন রাজিয়া সুলতানা অভিযোগ বলেন, শাশুড়ি প্রায় সময় আমার বোনকে বকাঝকা করতেন। শনিবারও মাইমুনাকে বকাঝকা করেছেন। এজন্য সে আত্মহত্যা করেছে। আমরা এই দোষীদের শাস্তি চাই। এ বিষয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা করবে বলে জানান তিনি।

সাহেরখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন দুলাল বলেন, আছরের নামাজের পর মেয়ের ভাসুর ফোন দিয়ে বলে আমার ছোট ভাইয়ের বউ গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। তবে কী কারণে আত্মহত্যা করছে তা এখনও জানা যায়নি।

মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুজিবুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ভিকটিমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে আসার আগে বলা যাবে না এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়