Cvoice24.com

স্ত্রীর ধারের টাকা না পেয়ে স্বামীকে কোপাল পাওনাদার প্রতিবেশি, মামলা তুলে নিতে ছেলেকে হুমকি

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:৪৫, ১৬ এপ্রিল ২০২২
স্ত্রীর ধারের টাকা না পেয়ে স্বামীকে কোপাল পাওনাদার প্রতিবেশি, মামলা তুলে নিতে ছেলেকে হুমকি

সংসারের অভাবের কারণে প্রতিবেশী মীর হোসেনের কাছ থেকে ৭ মাস আগে ১০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিলেন সৈয়দপুর ইউনিয়নের ধন মিয়া সওদাগরের বাড়ির ঝরনা বেগম (৪৮)। ১০-১২ দিন আগে সেই ১০ হাজার টাকা পরিশোধও করেন তিনি। দিতে দেরি হওয়ায় ১০ হাজার টাকার পরিবর্তে ২০ হাজার টাকা দাবি করে বসেন মীর হোসেন। বাড়াবাড়ি না করে তাও দিতে রাজি হয়ে যান ঝরনা বেগম। তবে ঈদের পর। আর তাতে ক্ষেপে যান মীর হোসেন। 

গত বুধবার ১৩ এপ্রিল  দুপুরে আরও কয়েকজনকে নিয়ে ঝরনাদের বাড়িতে এসে তাদের অকথ্য ভাষায় আক্রমণ ও হুমকি দেন। একই দিন রাতে তারাবির নামাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিলেন ঝরনা বেগমের স্বামী আবুল মুনসুর। পথিমধ্যে মিরের দীঘির দক্ষিণ পাশে স্থানীয় সন্ত্রাসী সৌরভ হোসেন ও সোহেলকে নিয়ে চাপাতি, ছুরি ও কিরিচ দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। কোপ খেয়ে আবুল মুনসুর মাটিতে পড়ে গেলে এক পর্যায়ে তারা চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

অন্যদিকে এ ঘটনায় আবুল মুনসুরের ছেলে শাকিল বাদী হয়ে পরদিন থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা শাকিল ও তার পরিবারের লোকজনকে নানাভাবে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বাদী শাকিল। 

তিনি বলেন, মামলা না তুললে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এছাড়া মীর হোসেনের স্ত্রী ও মেয়েরা প্রতিদিন কয়েকবার দা হাতে আমাদের ঘরের সামনে এসে গালিগালাজ ও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন সীতাকুণ্ড থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়