Cvoice24.com

হতাশ মা, অভাবের সংসারে সন্তানকে অগোচরে তুলে দিলেন অন্যের হাতে

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:৪২, ১৯ মে ২০২২
হতাশ মা, অভাবের সংসারে সন্তানকে অগোচরে তুলে দিলেন অন্যের হাতে

প্রথম বাচ্চার বয়স ১৬ মাস। এরই মধ্যে জন্ম নিল দ্বিতীয় বাচ্চা। অভাবের সংসার তার উপর মার বয়স ২০ বছর। এসব কারণে প্রতিবেশিরা নানা কথা শোনাতে থাকে। আর তাতেই  ডিপ্রেশনে ভুগে নিজের ১৪ দিন বয়সের বাচ্চা অন্যকে দিয়ে দিয়েছেন এক মা। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন। 

গত সোমবার সংগঠিত এই ঘটনার সেই বাচ্চাকে তিন দিন পর বৃহস্পতিবার (১৯ মে) উদ্ধার করেছে পুলিশ। নগরের আকবর শাহ থানার পুলিশের সহায়তায় সীতাকুণ্ড থানার এসআই নোমান চট্টগ্রাম সিটি গেইট সংলগ্ন একটি বাসা থেকে বাচ্চাটিকে উদ্ধার করে।

জানা যায়, গত সোমবার ডাক্তার দেখানোর কথা বলে ঘর থেকে বের হয় বাচ্চার মা জেনি আক্তার। ঘণ্টা দুয়েক পর বাচ্চাকে রেখে একা বাড়ি ফিরেন তিনি। বাড়িতে সবাইকে সিএনজি থেকে বাচ্চা চুরি হয়ে গেছে বলে জানান তিনি। এক মহিলা তার মাথায় হাত বুলিয়ে বাচ্চা নিয়ে পালিয়ে যায় বলে সেদিন তিনি সবাইকে জানান। পরদিনবাবা বাদী হয়ে বাচ্চা চুরি গেছে এ মর্মে সীতাকুণ্ড থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের তদন্তে নেমে বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ বাচ্চাটিকে উদ্ধার করেন।

হারানো বাচ্চার পিতা মো. ইয়াসিন বলেন, আমার বাড়ি খুলনার বাগেরহাটে। পেশায় আমি একজন অটোরিক্সা চালক। বাচ্চা ডেলিভারির সময় হওয়াতে স্ত্রীকে কিছুদিন আগে সীতাকুণ্ডে বাবার বাড়িতে পাঠাই আমি। সুস্থভাবে বাচ্চা প্রসব করে সে। কিন্তু কি কারণে আমার স্ত্রী এই ঘটনা ঘটিয়েছে আমার বোধগম্য হচ্ছেনা। 

সীতাকুণ্ড থানার এসআই নোমান বলেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

সিভয়েস/এএ

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়