Cvoice24.com

৫ বছর পর চবির আবাসিক হলে আসন বরাদ্দের সিদ্ধান্ত

চবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯:৫০, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২
৫ বছর পর চবির আবাসিক হলে আসন বরাদ্দের সিদ্ধান্ত

পাঁচ বছর পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) আবাসিক হলগুলোতে আসন বরাদ্দের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বরাদ্দের পর হলগুলোতে বিশেষ পরিদর্শন ব্যবস্থা চালু থাকবে। অবৈধভাবে হলে অবস্থানকারীর বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা জানান প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সিট বরাদ্দ কমিটির সদস্য সচিব ড. রবিউল হাসান ভুঁইয়া স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানানো হয়। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা আবেদন ফরম সংগ্রহ করে জমা দিতে পারবে। তবে যারা আগে ফরম জমা দিয়েছে তাদের পুনরায় আবেদন করার প্রয়োজন নেই।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আবাসিক হলসমূহে অবস্থানের জন্য সাময়িক, বিশেষ ও দ্বৈতাবাসিক অনুমতিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদেরও নিয়মিত আসন বরাদ্দের জন্য আবেদন করতে হবে। এই বিজ্ঞপ্তি সংশ্লিষ্ট আসন বরাদ্দের পর পূর্বে অনুমতি প্রাপ্ত সাময়িক, বিশেষ ও দ্বৈতাবাসিক বরাদ্দ বাতিল হয়ে যাবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদন ফরম উল্লেখিত সময়সীমার মধ্যে জমা দিতে ব্যর্থ হলে আবেদনটি বাতিল বলে গণ্য হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ছাত্র-ছাত্রীদেরকে এ মর্মে সতর্ক করা যাচ্ছে যে, আসন বরাদ্দ কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর আবাসিক হলগুলোতে বিশেষ পরিদর্শন ব্যবস্থা চালু থাকবে। এ ব্যবস্থার আওতায় বিশেষ পরিদর্শক টিম এবং আইন শৃংখলা বাহিনী যে কোন সময় হলে তল্লাশি চালাবে এবং বরাদ্দ ছাড়া অবৈধভাবে হলে অবস্থানকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

প্রসঙ্গত, সর্বশেষ ২০১৭ সালের জুনে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে আসন বরাদ্দ দেয় তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর প্রশাসন। এরপর ২০১৯ সালের মার্চে হলগুলোতে পুনরায় আসন বরাদ্দের বিজ্ঞপ্তি দিলে আবেদন ফরম কেনেন প্রায় পাঁচ হাজার শিক্ষার্থী। তবে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তিন মাস পরে তৎকালীন উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হলে উপাচার্যের দায়িত্ব পান অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার। এরপর থেকে বন্ধ থাকে আবাসিক হলগুলোর আসন বরাদ্দ।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়