Cvoice24.com

প্রধানমন্ত্রীর কক্সবাজার সফর/ উদ্বোধন হবে ২৮ প্রকল্প, ৪টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন 

কক্সবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৩:০৮, ৬ ডিসেম্বর ২০২২
উদ্বোধন হবে ২৮ প্রকল্প, ৪টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন 

গত ১৪ বছরে আওয়ামী লীগ সরকার কক্সবাজারে সাড়ে তিন লাখ কোটি টাকার ৭২টি প্রকল্প গ্রহণ করেছেন। প্রকল্পগুলোর অধিকাংশই এখন শেষের পথে। 

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) কক্সবাজার সফরকালীন চলমান ৭২ প্রকল্পের মধ্যে ২৮ প্রকল্পের উদ্বোধন ও নতুন করে আরও ৪টির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জেলা প্রশাসন প্রকল্পগুলো উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। 

জেলা প্রশাসনের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন— কক্সবাজার গণপূর্ত উদ্যান, বাহারছড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা মাঠ, কুতুবদিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ভবন, উপজেলা ভূমি অফিস ভবন, পেকুয়া, কক্সবাজার জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় ভবন, শেখ হাসিনা জোয়ারিয়ানালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা একাডেমিক ভবন, আবদুল মাবুদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা একাডেমিক ভবন, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা একাডেমিক ভবন, কক্সবাজার জেলার লিংক রোড-লাবনী মোড় সড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প, রামু-ফতেখাঁরকুল-মরিচ্যা জাতীয় মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ প্রকল্প, টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ জেলা মহাসড়কের হাড়িয়াখালী হতে শাহপরীরদ্বীপ অংশ পুনর্নির্মাণ, প্রশস্তকরণ এবং শক্তিশালীকরণ প্রকল্প, বাঁকখালী নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ-নিষ্কাশন-সেচ ও ড্রেজিং প্রকল্প (১ম পর্যায়), শাহপরীরদ্বীপে সি ডাইক অংশে বাঁধ পুনর্নির্মাণ ও প্রতিরক্ষা কাজ, ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডারসমূহের পুর্নবাসন প্রকল্প, রামু কলঘর বাজার-রাজারকুল ইউপি সড়কে বাঁকখালী নদীর উপর ৩৯৯ মিটার দীর্ঘ সাংসদ ও রাষ্ট্রদূত ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী সেতু, কক্সবাজার জেলায় নবনির্মিত ৬টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবন, ৪টি উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন (রামু, টেকনাফ, মহেশখালী ও উখিয়া); কক্সবাজার পৌরসভার এয়ারপোর্ট রোড আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প, শহীদ স্মরণী আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প; বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প, নাজিরারটেক শুটকি মহাল সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প, টেকপাড়া সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প, সি বিচ রোড আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প এবং মুক্তিযোদ্ধা স্মরণী আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প, সৈকত-স্মরণ আবাসিক এলাকা সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য প্রকল্প।

এছাড়া নতুন করে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনে থাকা ৪ প্রকল্প হচ্ছে- বাংলাদেশ ওশানোগ্রাফিক রিসার্চ ইনস্টিটিউট (২য় পর্যায়) শীর্ষক প্রকল্প, কুতুবদিয়া উপজেলাধীন ধুরুং জিসি মিরাখালী সড়কে ধুরুংঘাটে ১৫৩.২৫ মিটার জেটি এবং আকবর বলি ঘাটে ১৫৩.২৫ মিটার জেটি নির্মাণ প্রকল্প, মহেশখালী উপজেলাধীন মহেশখালী গোরকঘাটা ঘাটে জেটি নির্মাণ প্রকল্প এবং বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত নিরাপত্তা উন্নত করার জন্য উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় নাফ নদী বরাবর পোল্ডারসমূহের পুর্নবাসন প্রকল্প।

সম্পন্ন হওয়া ২৮ প্রকল্পে খরচ হয়েছে ১ হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা এবং ভিত্তিপ্রস্তর হতে যাওয়া চার প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৭২ কোটি টাকা। 

বুধবার ৭ ডিসেম্বর কক্সবাজার সফরে আসবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন প্রথমে প্রধানমন্ত্রী উখিয়ার ইনানীস্থ বঙ্গোপসাগরের পাড়ে আন্তর্জাতিক নৌ মহড়া অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। পরে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের নিকটবর্তী লাবণী পয়েন্টের শহীদ শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এসময় প্রকল্পগুলো উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। 

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, কক্সবাজারে ৭২টি উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে। এর মধ্যে ২৮টি প্রকল্পের কাজ শেষে। অবশিষ্টগুলোও শেষের পথে। তবে যেগুলো সম্পন্ন হয়েছে সেগুলো প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন। একই সাথে নতুন করে হাতে নেয়া চারটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এই জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জনসভাস্থল থেকে এসব প্রকল্প উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।
 

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়