Cvoice24.com

চার নিলামেও বিক্রি হয়নি ১১৩ বিলাসবহুল গাড়ি, ফের উঠছে নিলামে

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২২:৫৭, ১৪ অক্টোবর ২০২১
চার নিলামেও বিক্রি হয়নি ১১৩ বিলাসবহুল গাড়ি, ফের উঠছে নিলামে

বিদেশি পর্যটকদের বিনা শুল্কে আনা বিলাসবহুল ১১৩টি গাড়ি বার বার নিলামে তুলেও বিক্রি করতে পারছে না চট্টগ্রাম কাস্টমস। এক দশক আগে বিভিন্ন দেশের পর্যটকেরা ৯০ দিন ব্যবহারের সুযোগে বিনা শুল্কে চট্টগ্রাম বন্দরে এনেছিল। অবৈধ উপায়ে বিলাসবহুল এসব গাড়ি বেশি দামে বিক্রি করে দিলেও সরকারি বিধি-নিষেধে পড়ে আর বিক্রি করতে পারেনি পর্যটকেরা। এসব গাড়ি পরপর চার বার নিলামে তুলেও বিক্রি না হওয়ায় বন্দরের ইয়ার্ডে স্তূপ পড়েছে। ইয়ার্ড খালি করতে আগামী ৩ ও ৪ নভেম্বর ফের নিলামে উঠছে বিলাসবহুল এসব গাড়ি।

এবারের নিলামে ২৬টি মিতশুবিশি, ২৫টি মার্সিডিজ বেঞ্চ , ২৫টি বিএমডব্লিউ, ৭টি ল্যান্ডরোভার, ৭টি ল্যান্ডক্রুজার, ১টি সিআরভি, ৬টি লেক্সস, ৫টি ফোর্ড, ৩টি জাগুয়ার, ১টি দাইয়ু ও ১টি হোন্ডাসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ১১৩টি গাড়ি রয়েছে। এসব গাড়ির বাজার মূল্য ১ কোটি থেকে ৩ কোটি টাকা। তবে পুরাতন হওয়ায় অনেকটা কম দামেই কেনা যাবে এসব গাড়ি।

চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস সূত্রে জানা যায়, আগামী নিলামে ২ কোটি ৩৮ লাখ ১৩ হাজার ৯৬০ টাকার বিএমডব্লিউ-৭৩০, ৪ কোটি ৩০ লাখ ১৬ হাজার ৩২১ টাকার রেঞ্জ রোভার, ২ কোটি ৭৮ লাখ ৬৪ হাজার ৫৯৩ টাকার বিএমডব্লিউ, ২ কোটি ২৭ লাখ ২৫ হাজার ৬২৯ টাকার মিটসুবিশি, ১ কোটি ১৩ লাখ ৯৭ হাজার টাকার বিএমডব্লিউ, ১ কোটি ২৯ লাখ ৫৯ হাজার ২৯১ টাকার বিএমডব্লিউ, ১ কোটি ১০ লাখ ৪২ হাজার ৯৩০ টাকার পাজেরো, ১ কোটি ৬০ লাখ ৯৪ হাজার ৭১৩ টাকার মার্সিডিস, ৯৭ লাখ ১৯ হাজার ৩১৪ টাকার মার্সিডিস, ৩ কোটি ৪৫ লাখ ৪১ হাজার ৩৮৪ টাকার রেঞ্জ রোভার, ১ কোটি ৬২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৬৮ টাকার, বেএমডব্লিউ-এক্স ৫, ১ কোটি ২৮ লাখ ৭৪ হাজার ১৮১ টাকার জাগুয়ার, ৪০ লাখ ৮২ হাজার ৭২৪ টাকার হোন্ডা কোম্পানির প্রাইভেট কার, ২ কোটি ৮ লাখ ৮ হাজার ১১৪ টাকার মার্সিডিস, ৯৬ লাখ ২১ হাজার ৯৬৪ টাকার ডাইয়ো ব্র্যান্ডের গাড়ি বিক্রি হবে। 

তাছাড়া ২ কোটি ২২ লাখ ৫৭ হাজার ৪৮৮ টাকার মার্সিডিস, ৪ কোটি ৫ লাখ ১৩ হাজার ৩১৩ টাকার রেঞ্জ রোভার, ১ কোটি ২৩ লাখ ১৯ হাজার ৫২১ টাকার মার্সিডিস, ২ কোটি ২৯ লাখ ৪৪ হাজার ৪৩৭ টাকার টয়োটা ব্র্যান্ডের গাড়ি, ১ কোটি ৬০ লাখ ৯৩ হাজার ৯৭৪ টাকার বিএমডব্লিউ, ১ কোটি ৩৯ লাখ ১৬ হাজার ৯২৪ টাকার মিটসুবিশি, ৪৭ লাখ ৬৭ হাজার ৮১৯ টাকার মিটসুবিশি, ৪৬ লাখ ৯৮ হাজার ৮১৯ টাকার মিটসুবিশি মিনি জিপ, ১ কোটি ২৪ লাখ ৩৬ হাজার ৮৭১ টাকার মার্সিডিস বেঞ্জ কার, ১ কোটি ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ২১৯ টাকার জাগুয়ার কার, ৮৭ লাখ ৯৫ হাজার ৯৩৯ টাকার মিটসুবিশি, ১ কোটি ৯২ লাখ ৬১ হাজার ৬২৯ টাকার বিএমডব্লিউ, ১ কোটি ৫৮ লাখ ১১ হাজার ৬১৫ টাকার বিএমডব্লিউ, ১ কোটি ৪৯ লাখ ১৫ হাজার ৪১ টাকার লেক্সাজ ব্র্যান্ডের অটো মটর বেহিক্যাল, ৮৫ লাখ ৪১ হাজার ৫৪৪ টাকার মার্সিডিস বেঞ্জ, ১ কোটি ৭৭ লাখ ২৫ হাজার ৪৭৩ টাকার লেক্সাজ কার, ১ কোটি ৯২ লাখ ৬১ হাজার ৬২৯ টাকার বিএমডব্লিউ জিপ, ১ কোটি ৪৬ লাখ ৯৯ হাজার ৮৮৬ টাকার লেক্সাস কার, ৫৩ লাখ ৮৯ হাজার ৬০৭ টাকার ভলক্স ওয়াগন, ১ কোটি ২৯ লাখ ৮৩ লাখ ৫৩১ টাকার টয়োটা জিপ, ১ কোটি ৪৬ লাখ ৯৯ হাজার ৮৮৬ টাকার লেক্সাজ জিপ, ১ কোটি ৬০ লাখ ৯৯ হাজার ৭২০ টাকার মিটসুবিশি জিপ, ১ কোটি ৫৮ লাখ ৪১ হাজার ৫৭০ টাকার মিটসুবিশি জিপ, ৯১ লাখ ৭ হাজার ৭৪৬ টাকার মার্সিডিজ বেঞ্জ কার, ১ কোটি ৬ লাখ ৬৬ হাজার টাকার মার্সিডিজ বেঞ্জ, ১ কোটি ৯২ লাখ ৬১ হাজার ৬২৯ টাকার বিএমডব্লিউ, ৯৩ লাখ ৫৬ হাজার ৩২৯ টাকার বিএমডব্লিউ এক্স ৫, ৫৪ লাখ ১৫ হাজার টাকার বিএমডব্লিউ কার, ৭১ লাখ ৫৬ হাজার টাকার ফোর্ড ফোর, ১ কোটি ৩২ লাখ ৪৭ হাজার টাকার মিটশুবিশি শোগান জিপ, ১ কোটি ৭৪ লাখ ৫৮ হাজার টাকার মিটশুবিশি পাজেরো ও ১ কোটি ৭৬ লাখ ৪২ হাজার টাকার টয়োটা ল্যান্ডক্রুজারসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের গাড়ি নিলামে উঠছে।   

বিলাসবহুল গাড়িগুলো কিনতে আগ্রহী বিডাররা চট্টগ্রামসহ ঢাকা, সিলেট ও মোংলায় কাস্টমস অফিসে রাখা বাক্সে দরপত্র আবেদন জমা দিতে পারবেন। তাছাড়া আগামী ২৭ থেকে ২৮ অক্টোবর ও ৩১ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর গাড়ি পরিদর্শন করতে পারবেন নিলামকারীরা। তবে জাতীয় পরিচয় কিংবা পাসপোর্টের ছবিসহ চারদিন আগে গাড়ি পরিদর্শনের পাস নিতে হবে।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের উপ-কমিশনার (নিলাম শাখা) আলী রেজা হায়দার সিভয়েসকে বলেন, এক দশক আগে কারনেট ডি প্যাসেজ সুবিধায় আনা বিলাসবহুল ১১৩টি গাড়ি নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। এই গাড়িগুলো অখালাস অবস্থায় বর্তমানে চট্টগ্রাম বন্দরে রয়েছে। আগামী ৩ ও ৪ নভেম্বর বিলাসবহুল গাড়িগুলো নিলামে উঠছে। যেকোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যথাযথ কাগজপত্র জমা দিয়ে নিলামে অংশ নিতে পারবেন।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়