Cvoice24.com

স্বস্তি মিলছে না সবজিতে, দামে বাড়তি মাছ-মাংসও

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:৪২, ১৫ অক্টোবর ২০২১
স্বস্তি মিলছে না সবজিতে, দামে বাড়তি মাছ-মাংসও

বাসা থেকে হাজার টাকা নিয়ে এক কেজি মুরগি, এক লিটার তেল, এক কেজি রুই মাছ আর অল্প পরিমাণে কিছু সবজি কিনতেই ফুরিয়ে গেল সব টাকা। হাজার টাকার বাজার ব্যাগের তলানিতেই পড়ে আছে। মাছ, মাংস, সবজি, তেল, মশলা কোন কিছুতেই নেই স্বস্তি। মানুষের আয় বাড়েনি, খাদ্যপণ্যের দাম হু হু করে বাড়ছে। পণ্যের দাম কমাতে আশানুরূপ কোনো উদ্যোগই চোখে পড়ছে না। কে দেখবে আমাদের, কার কাছে যাব আমরা, কিভাবে বাঁচবে সাধারণ মানুষ। 

সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) নগরের কর্ণফুলী বাজারে এসে কথাগুলো বলছিলেন আগ্রাবাদ সিডিএর বাসিন্দা জোনায়েদ ইসলাম।

তিনি আরও বলেন, ‘৫০ টাকার নিচে সবজি নেই। ১৫০ টাকায় মরিচ বিক্রি হচ্ছে। আদা, রসুন, পেঁয়াজ, চাল, তেল, ডাল কোন কিছুতেই স্বস্তি পাওয়া যাচ্ছে না। আমাদের আয়-ব্যয়ের হিসাব মিলছে না।’

সরেজমিনে বাজারে গিয়ে দেখা যায়, সপ্তাহের ব্যবধানে সবজির কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা বেড়েছে। প্রতিকেজি ঢেড়শ ৬০ টাকা, লতি ৭০ টাকা, লাউ ৫০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৫০ থেকে ৬০ টাকা, পটল ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সেই সঙ্গে গাজরের দাম ঠেকেছে ১শ’ টাকায়। 

সবজি বিক্রেতা সোহরাব হোসেন সিভয়েসকে বলেন, ‘বাজারে ক্রেতার চাহিদা বেশি। সে হিসেবে সবজির সরবরাহ কম। বিশেষ করে শীতকালীন সবজি বাড়তি দরে বিক্রি হচ্ছে। সরবরাহ বাড়লে সবজির দাম কমে যাবে।’

তাছাড়া প্রতিলিটার সয়াবিন তেল ১৫০ টাকায়, ডাল (মোটা) ৯৫ টাকা, ডাল (চিকন) ১শ’ ও প্রতি হালি ডিম ৩৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। 

এদিকে মাছের বাজারেও মিলছে না স্বস্তি। বাজারে প্রতিকেজি রুই-কাতলা ৩৫০ টাকা, তেলাপিয়া ১৮০ থেকে ২শ’, সিলভার কার্প ১৮০, গলদা চিংড়ি ৭শ’, কাচকি ৩শ’ ও পাঙ্গাস ২শ’ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে গত সপ্তাহের বাড়তি দরেই বিক্রি হচ্ছে মুরগি। প্রতিকেজি ব্রয়লার ১৮০, লেয়ার ২৫০ ও সোনালী ২৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে আগের দরে গরুর মাংস বিক্রি হলেও বেড়েছে খাসির মাংসের দাম। বাজারে প্রতিকেজি গরু ৬শ’ ও আগে ৭৫০ টাকায় বিক্রি হওয়া খাসি আজ ৯শ’ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

-সিভয়েস/টিএম

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়