Cvoice24.com

বৃহস্পতিবার নিলামে উঠবে ৬৪ লট পণ্য

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:২৯, ২৪ অক্টোবর ২০২১
বৃহস্পতিবার নিলামে উঠবে ৬৪ লট পণ্য

চট্টগ্রাম বন্দরে খালাস না হয়ে পড়ে থাকা ৬৪ লট পণ্যের নিলামের আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস। আগামী ২৮ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নিলামে উঠছে গাড়ি, ক্যামিকেল, ফুড স্টাফ, মেশিনারিজ, মোটর পার্টস, লোহা, স্টিল স্ক্রাফ, টেক্সটাইল পণ্য, ফেব্রিক্স, গ্লাসওয়্যার, পেপার ও প্লাস্টিকসহ বিভিন্ন পণ্য। 

এবারের নিলামে ৫ কোটি ৬৩ লাখ ৪২ হাজর ৯৬৫ টাকার থ্রি হুইলার সিএনজি ফোর স্ট্রোক ইঞ্জিন, ১ কোটি ২৪ লাখ ৫৬০ টাকার থ্রি হুইলার সিএনজি, ৩৫ লাখ ৮১ হাজার ৭৭৪ টাকার ফোর হুইল ইলেকট্রিক বেহিক্যাল, ৫৭ লাখ ১১ হাজার ৮১২ টাকার সাইকেলের পার্টস ও ১৭ লাখ ৯০ হাজার ৯২৭ টাকার বাজাজ মোটরসাইকেল পার্টস বিক্রি করা হবে। তবে সবচেয়ে বেশি রয়েছে ড্রাগন ফল ও ফেব্রিক্স পণ্য।

চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের তথ্য মতে, এবারের নিলামে ১৫২ কেজি সালফিউরিক এসিড, ২ হাজার ১০ কেজি টেক্সটাইল কেমিক্যাল, ১৫ হাজার ৫শ কেজি ওজনের ড্রাগন ফল, ৩৬ কার্টন প্লাস্টিক হ্যাঙ্গার, ২০ ব্যাগ জিংক অক্সাইড, ৩১ হাজার ২০৫ টাকার রেডিমেড গার্মেন্টস পণ্য, ৭ কার্টন পেপার ট্যাগ, ২ হাজার ১৩ রোল ফেব্রিক্স পণ্য, ১ কার্টন ল্যারেটরি পণ্য, ৭৪ কার্টন কটন হ্যান্ড কভার, ৩০২ ব্যাগ এলুমিনিয়াম পাউডার, ৪৬০ ব্যাগ বেনটোনাইট ক্লে, ৩ কার্টন কটন ড্র কর্ড, ৩৮ হাজার ৮৫৬ টাকার বই, ১৮ পিস ওয়াল ফ্যান, দুই লটে ৪ হাজার ৫শ কার্টন জুস, ৮০ ড্রাম সাইক্লো হেক্সানন (বিপজ্জনক দাহ্য পদার্থ), ১ হাজার ৩৪১ কার্টন স্যানিটাইজার পণ্য, ২৪ হাজার ৬০৯ টাকার থান কাপড় বিক্রি করা হবে।

তাছাড়া ২৮ লাখ ৯ হাজার ৭৭৬ টাকার ফুটওয়্যার, ১৩ লাখ ৭৮ হাজার ৭৬০ টাকার দরজা, ২৯৮ কার্টন গ্যাস স্টোভ পার্টস, ১ কোটি ৮১ লাখ ৫৫ হাজার টাকার ডুপ্লেক্স বোর্ড, ১ কোটি ৩ লাখ ৩৫ হাজার টাকার কার্বন স্টিল বার, ১ হাজার ৯৬০ কার্টন টাইলস, ৭৮ লা্খ ৫০ হাজার টাকার ইলেকট্রিক মেশিনারি, ২৭ লাখ ৬ হাজার টাকার গ্রানাইট ব্লকস, ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ১৪৯ টাকার ডিসপার্স ডাইস, ৬৮ লাখ ৬৪ হাজার টাকার কিউমিন সিড, ২৬ লাখ টাকার নিউ ক্যাপিটাল মেশিনারি, ৮৪০ কার্টন লুবরিকেটিং ওয়েল, ১৪ লাখ ৭০ হাজার টাকার পিপি-আইলেট, ৫০১ রোল পিভিসি পেনাপ্ল্যাক্স (ব্যানার), ৩ হাজার ২৭৩ রোল এডেসিভ টেপ, ৪৬১ রোল মার্সেন্ডাইজ পণ্য, ১ লাখ ২ হাজার বাগ সিমেন্ট পণ্য উঠছে নিলামে।

সরকারি নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স কে এম করপোরেশন বরাবরের মতো এই নিলাম পরিচালনা করছে। প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার মোহাম্মদ মোরশেদ সিভয়েসকে বলেন, ‘আজ রোববার (২৪ অক্টোবর) থেকে নিলামের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। নিলামে অংশ নিতে হলে ২৪ অক্টোবর থেকে আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত অফিস চলাকালীন সময়ে ২শ’ টাকা দরে ক্যাটালগ ও ১শ’ টাকা দরে দরপত্র সংগ্রহ করা যাবে। আগামী ২৭ ও ২৮ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের রাজস্ব কর্মকর্তা (প্রশাসন) ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে টেন্ডার বক্সে দরপত্র জমা দিতে হবে। পাশাপাশি আগামী ২৫ ও ২৬ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত বিক্রয়যোগ্য পণ্য পরিদর্শন করতে পারবেন বিডাররা।’  

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার (নিলাম শাখা) আলী রেজা হায়দার সিভয়েসকে বলেন, ‘কাস্টমস কমিশনার মোহাম্মদ ফখরুল আলমের নির্দেশনায় আগামী ২৮ অক্টোবর নিলামটি অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ক্যাটালগ পণ্যের নিলামে আইপিও শর্ত, রিট মামলা যাচাই ও অন্যান্য শর্ত মেনে চলা হবে। নিলামে তোলা পণ্যগুলো যেখানে যে পরিমাণে আছে ওভাবেই খালাস করতে হবে। তাই বিডারদেরকে পণ্য দেখে কেনার জন্য পরামর্শ দিচ্ছি আমরা।’  

প্রসঙ্গত, বিদেশ থেকে আনা বিভিন্ন পণ্য খালাস করেন না আমদানিকারকরা। পাশাপাশি শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনতে গিয়ে কায়িক পরীক্ষায় আটক করা হয়। নিয়মনুযায়ী তাদের ৩০ দিনের মধ্যে এসব পণ্য খালাসের নির্দেশ দিয়ে নোটিশ দেওয়া হয়। নোটিশ দেওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে পণ্য খালাস না নিলে এসব পণ্য নিলামে তোলে কাস্টমস হাউস কর্তৃপক্ষ।

-সিভয়েস/টিএম

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়