Cvoice24.com

ভর্তি নিশ্চায়ন করেনি চট্টগ্রামের ২৪ হাজার শিক্ষার্থী 

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২২:১৬, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩
ভর্তি নিশ্চায়ন করেনি চট্টগ্রামের ২৪ হাজার শিক্ষার্থী 

একাদশ শ্রেণির ভর্তির জন্য কলেজ পেয়েও ভর্তি নিশ্চায়ন করেনি চট্টগ্রামের প্রায় ২৪ হাজার শিক্ষার্থী। প্রথম পর্যায়ে ১ লাখ ১৪ হাজার ৪৫০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তির জন্য মনোনীত করা হলেও ভর্তি নিশ্চায়নের শেষ সময় পর্যন্ত নিশ্চায়ন করেছেন ৯০ হাজার ৪৫০ জন শিক্ষার্থী। ফলে নিশ্চায়ন না করা এ ২৪ হাজার শিক্ষার্থীর ভর্তির আবেদন বাতিল হয়ে গেছে। একাদশে ভর্তি হতে চাইলে তাদেরকে নতুন করে পুনরায় আবেদন করতে হবে। 

এ অবস্থায় প্রথম ধাপে যারা কলেজে ভর্তির আবেদন করেনি, তারা দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে আবেদন করতে পারবে। তাছাড়া একাদশে ভর্তির দ্বিতীয় ধাপের আবেদন শেষ হবে আগামীকাল (১৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায়।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক জাহেদুল হক।

বোর্ড সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২৮০টি কলেজের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির জন্য প্রথম পর্যায়ে ১ লাখ ২৩ হাজার ১৫১ জন শিক্ষার্থী আবেদন করে। তারমধ্যে ১ লাখ ১৪ হাজার ৪৫০ জন শিক্ষার্থী কলেজে ভর্তির মনোনয়ন পায়। আর আবেদন করেও প্রথম তালিকায় ৮ হাজার ৭০১ জন শিক্ষার্থী কোনো কলেজ পায়নি। এরমধ্যে জিপিএ–৫ পাওয়া ৫০১ শিক্ষার্থীও রয়েছে। অর্থাৎ চট্টগ্রামে শিক্ষাবোর্ডের জিপিএ–৫ পাওয়া ১১ হাজার ৬১২ জনের মধ্যে কলেজগুলোতে ভর্তির জন্য আবেদন করে ১১ হাজার ৫৭৩ জন। তারমধ্যে ১১ হাজার ৭২ জন প্রথম পর্যায়ে ভর্তির জন্য মনোনীত হয়। 

এদিকে, দ্বিতীয় ধাপের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে ১৬ সেপ্টেম্বর। এ ধাপে ১৭ ও ১৮ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক নিশ্চায়নের সুযোগ পাবেন দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা। ২০ ও ২১ সেপ্টেম্বর তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন শেষে ২৩ সেপ্টেম্বর ফল প্রকাশ করা হবে। ২৪ ও ২৫ সেপ্টেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচন নিশ্চায়ন চলবে। আর প্রাথমিক নিশ্চায়ন সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীরা তাদের আবেদনে দেয়া পছন্দক্রমের উপরের দিকের কলেজে অটো মাইগ্রেশনের সুযোগ পাবে। মাইগ্রেশনের জন্য আলাদা আবেদনের প্রয়োজন নেই।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক জাহেদুল হক সিভয়েসকে বলেন, ‘প্রথম পর্যায়ে আবেদন করেও মনমতো কলেজ না পাওয়ায় ভর্তি নিশ্চায়ন করেনি চট্টগ্রামের ২৪ হাজার শিক্ষার্থী। প্রাথমিক নিশ্চায়ন না করায় তাদের আবেদন বাতিল হয়ে গেছে। তাই পুনরায় তাদের নতুন করে আবেদন করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রথম ধাপের আবেদনে সর্বনিম্ন ৫টি ও সর্বোচ্চ ১০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পছন্দক্রম দিয়ে আবেদনের সুযোগ ছিল। দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপেও এই সুযোগ থাকছে। আগামীকাল রাত ৮টায় দ্বিতীয় ধাপের আবেদনের সময় শেষ হবে। এ সময়ের মধ্যে কলেজের পছন্দক্রম পরিবর্তন, নতুন কলেজ যুক্তকরণ বা কোনো কলেজ বাদ দেওয়ার মাধ্যমে আগের (প্রথম দফায় করা) আবেদনটি আপডেট বা সংশোধন করা যাবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে কলেজ পরিদর্শক আরও বলেন, ‘সর্বোচ্চ দশটি কলেজ পছন্দক্রম দিয়ে আবেদনের সুযোগ থাকলেও আবেদনে কম সংখ্যক কলেজ পছন্দ দেওয়ায় জিপিএ–৫ প্রাপ্ত ৫০১ জন শিক্ষার্থী কলেজ পায়নি। জিপিএ–৫ পাওয়া এসব শিক্ষার্থী গড়ে ৫টির মতো কলেজ পছন্দ দিয়ে আবেদন করেছে। আগামীকাল (১৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টা পর্যন্ত এসব শিক্ষার্থীর আবেদন আপডেট করার এখনো সুযোগ রয়েছে।’

প্রসঙ্গত, তৃতীয় ধাপের আবেদন শেষে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি কার্যক্রম চলবে। একাদশে ক্লাস শুরু হওয়ার কথা আগামী ৮ অক্টোবর থেকে।

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়