Cvoice24.com

আজ রবীন্দ্রনাথের জন্মবার্ষিকী

প্রকাশিত: ০৫:১৬, ৮ মে ২০১৮
আজ রবীন্দ্রনাথের জন্মবার্ষিকী

কবিগুরুর হাজারো সৃষ্টি নানা সময় নানাভাবে রবীন্দ্রপ্রেমীদের মাঝে তৈরী করেছে ভিন্ন ভিন্ন দর্শন। কারো মাঝে সঙ্গীতে বেঁচে আছেন কবিগুরু আর কারো অন্তরে তাঁর কবিতাই যেনো একেকটা মহাকাব্য।

১২৬৮ বঙ্গাব্দের এই দিনে কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সঙ্গীতের এই কিংবদন্তি পুরুষ। 

শিল্পের নানা দরজায় কড়া নেড়েছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।  প্রেম, পূজা, প্রকৃতির হাজারো অনুষঙ্গে তাঁর বিচরণ। প্রকৃতির এ অনুষঙ্গের সুর ধরেই হয়ত কবি বলেছিলেন, তব কন্ঠস্বর যেন পূর্বজন্ম হতে পশি কর্ণ-পর জাগাইছে অপূর্ব বেদনা। কহো মোরে, জন্ম মোর বাধা আছে কী রহস্য-ডোরে তোমা সাথে হে অপরিচিতা।

কবি গুরুর কবিতা খোলা আকাশের বিশালতা নিয়ে  রবীন্দ্রপ্রেমীদের হৃদমাঝারে বাস করছে। কবির সৃষ্টিতে ধরা দিয়েছে আকাশের পাখি, নয়নে দেখা দিয়েছে তবু নতুন আকাশ।

আজ রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টির আলোয় নতুন করে উদ্ভাসিত হবে বিশ্ববাঙালী। রবীন্দ্রনাথের লেখা, দর্শন, চিন্তাচেতনা, তথা বহুমাত্রিক আলোকছটার ঔজ্জ্বল্য ও মহিমায় বাঙালীর জাতিসত্তা হয়েছে মহিমান্বিত ও গৌরবান্বিত। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলা সাহিত্যকে বিশ্বের দরবারে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বহু ভাষায় অনূদিত হয়েছে তাঁর সাহিত্য।

১৯১৩ সালে ‘গীতাঞ্জলি’ কাব্যগ্রন্থের জন্য সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেন তিনি। তার এ প্রাপ্তি বাংলা সাহিত্যকে বিরল গৌরব এনে দেয়। তোমারি নাম সকল তারার মাঝে। বাঙালীর চেতনার রং স্পষ্ট হয়েছিল রবির আলোয়। বাঙালীর প্রতিটি আবেগ আর সূক্ষ্ম অনুভূতিকে স্পর্শ করে আছেন তিনি।

সিভয়েস/এএইচ

90

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়