Cvoice24.com

কাবুলের মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৭, ১৮ আগস্ট ২০২২
কাবুলের মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২০

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের খাইরখানা এলাকায় একটি মসজিদে নামাজের সময় ভয়াবহ বিস্ফোরণে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আর কমপক্ষে ৩৫ জন। এখনও কোনো সংগঠন এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। এক নিরাপত্তা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে রয়টার্স। 

বুধবার (১৭ আগস্ট) রাত এশার নামাজের সময় এ ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছে ।

প্রত্যক্ষদর্শী এবং পুলিশের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায় জানিয়েছে, বিস্ফোরণে অনেকের মৃত বা আহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পুলিশ অনেক হতাহতের কথা বললেও কতজন তা জানায়নি। একজন তালেবান গোয়েন্দা কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছেন যে এ ঘটনায় ৩৫ জনের মতো আহত বা নিহত হতে পারে এবং সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। আল জাজিরা একজন অজ্ঞাত কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে মৃতের সংখ্যা ২০ বলে জানিয়েছে।

কাবুলের ইমার্জেন্সি হাসপাতাল টুইটারে জানিয়েছে যে তারা বিস্ফোরণে আহত ২৭ জন রোগীকে পেয়েছে, যার মধ্যে একটি সাত বছরের শিশুও রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা রয়টার্সকে বলেছেন যে শক্তিশালী বিস্ফোরণটি উত্তর কাবুলের একটি আশপাশে শোনা গেছে, বিস্ফোরণের তীব্রতা এত ছিল যে আশপাশের ভবনগুলো কেঁপে উঠে। ঘটনাস্থলে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছায় এবং আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়।

কাবুল পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরান রয়টার্সকে বলেছেন, ‘একটি মসজিদের ভেতরে বিস্ফোরণ ঘটেছে। বিস্ফোরণে অনেক হতাহত হয়েছে, তবে সংখ্যা এখনও পরিষ্কার নয়।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তালেবান গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, কাবুলের খাইরখানা এলাকায় উপাসকদের মধ্যে একটি মসজিদে বিস্ফোরণটি ঘটে। নিহতদের মধ্যে মসজিদের ইমামও ছিলেন এবং নিহতের সংখ্যা এখনও বাড়তে পারে। তবে বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে, এখনও ঘটনার দায় কেউ স্বীকার করেনি।

এর আগেই এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত হয়েছিলেন তালেবান নেতা শেখ রহিমুল্লাহ হাক্কানি। ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিলো ইসলামিক স্টেটের জিহাদিরা। 
 

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়