Cvoice24.com

রামগড়ে গরিবের চাল-আটা পাইকারি দোকানে বিক্রি, ভ্রাম্যমাণ আদালতে ধরা

রামগড় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:৪২, ১৭ মে ২০২২
রামগড়ে গরিবের চাল-আটা পাইকারি দোকানে বিক্রি, ভ্রাম্যমাণ আদালতে ধরা

রামগড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

খাগড়াছড়ির রামগড়ে ওএমএস’র চাল-আটা বিক্রিতে অনিয়মের অভিযোগ ও নীতিমালার শর্ত ভঙ্গের কারণে পৌরসভার সোনাইপুল বাজারে মো. হারুন নামে এক ব্যবসায়ীর ডিলারশিপ বাতিল করে বিক্রয় কাজ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ মে) সকালে পৌরসভার সোনাইপুল বাজারে মেসার্স হারুন ট্রেডার্সে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত।

জানা যায়,  সরকারি বরাদ্ধে রামগড় পৌর এলাকার তিনটি স্পটে তিনজন ডিলারের মাধ্যমে খোলা বাজারে ওএমএস’র চাল-আটা বিক্রি করা হচ্ছিল। প্রতি ডিলারকে প্রতিদিন এক হাজার ৫০০ কেজি চাল ও এক হাজার কেজি আটা বরাদ্দ দিয়ে জনপ্রতি ৫ কেজি বিক্রির শর্তে চাল ৩০ টাকা ও আটা ১৮ টাকা দরে এবং প্রতিজন ক্রেতাকে স্বাক্ষর বা টিপসই নেয়ার নির্দেশনা রয়েছে।

কিন্তু ডিলারশিপের শর্ত না মেনে মেসার্স হারুন ট্রেডার্সের মালিক মো. হারুন গরিবের চাল ও আটা মেসার্স আলমগীর স্টোরে অবৈধভাবে বিক্রি করছে- এ অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত মো. হারুনের ডিলারশিপ বাতিল করে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত জানান, এই ডিলারের বিরুদ্ধে গরিবের ওএমএস এর চাল ও আটা কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ ছিল। তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে এবং তিনি তার স্বীকার করার মো. হারুনের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে। সেখানে নতুন ডিলার নিয়োগ দেয়া হবে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়