Cvoice24.com

পতেঙ্গার জেলেদের উপর ওসমান বাহিনীর তাণ্ডব— পুলিশ কমিশনারের কাছে নালিশ

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:৫৩, ৩১ জুলাই ২০২১
পতেঙ্গার জেলেদের উপর ওসমান বাহিনীর তাণ্ডব— পুলিশ কমিশনারের কাছে নালিশ

মাছ ধরার জাল কেটে নিয়ে যাওয়া ও খুঁটি দখল করার মাধ্যমে জেলেদের মাছ শিকারের জায়গা দখলের অভিযোগ তোলা হয়েছে ওসমান বাহিনীর বিরুদ্ধে। নগরীর পতেঙ্গা মুসলিমাবাদ জেলে পাড়ার জেলেদের মাছ ধরায় বাধা দিয়ে আসছে এই ওসমান বাহিনী। এই বাহিনীর অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের দ্বারস্থ হয়েছেন ভুক্তভোগী জেলেরা।

সিএমপি কমিশনারের কাছে করা অভিযোগে জেলেরা বলেন, মুসলিমাবাদ জেলেপাড়া এলাকাস্থ বঙ্গোপসাগরে আমরা মাছ শিকারের ব্যবসার সাথে জড়িত আছি। অত্র এলাকার জেলেদের বাপ-দাদার আমলের চিহ্নিত সমুদ্র এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে মাছ শিকার ও আহরণ করে আসছি। কিন্তু সম্প্রতি ২৪ জুলাই ওসমান বাহিনী সন্ত্রাসী দলবল নিয়ে জেলেদের মাছ ধরার সীমানায় হানা দেয়। জেলেদের মারধর করে প্রায় ৭০টি মাছ ধরার জাল কেটে নিয়ে যায়। খুঁটি দখল করার পাঁয়তারা করে হুমকি দিয়ে যায় যে, ওইখানে যেন আর জেলেরা কখনো জাল না বসায়। এই ভরা মৌসুমে জেলেরা উচ্চহারে সুদ নিয়ে ও ধার দেনা করে বর্তমানে দিশেহারা গ্রস্থ হয়েছে। তার উপর করোনাকালীন সার্বিক আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ। এভাবেই প্রায় ৫০টি নৌকা দ্বারা জীবিকা নির্ভর প্রায় ২৫০ পরিবার আজ অসহায়।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে জেলেদের প্রতিনিধি মো. নুরুল আবছার বলেন, মুসলিমাবাদ জেলে পাড়ার ২৫০ পরিবার বাপ-দাদার আমল থেকে এই সাগরে জাল ফেলার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। এতোদিন সাগরে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর এখন ভরা মৌসুম। ২৪ জুলাই সাগরে জাল ফেলতে গেলে ওসমান বাহিনী আমাদের জেলেদের উপর হামলা করে। তার লোকজন আমাদের জেলেদের মারধর ও ৭০টি জাল কেটে নিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে আমরা থানায় অভিযোগ করলেও ওসমান বাহিনী কিছু পাত্তা দিচ্ছে না। সর্বশেষ আমরা সিএমপি কমিশনারের কাছে অভিযোগ করেছি। সাগরে জাল দিয়ে মাছ শিকার করে আমাদের জীবিকা চলে। মাছ ধরতে না পারলে আমাদের না খেয়ে থাকতে হবে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়