Cvoice24.com

জলাবদ্ধতা/ মুরাদপুরে নালায় পড়ে পথচারী নিখোঁজ, চলছে তল্লাশি

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:২৪, ২৫ আগস্ট ২০২১

 

টানা বৃষ্টিতে নগরের নিম্নাঞ্চল জলাবদ্ধতায় ডুবেছে। চট্টগ্রামের প্রধান সড়ক মুরাদপুরের নালা আর সড়ক পানিতে একাকার। পানিতে থমকে আছে যানবাহন। তাই নিরুপায় হয়ে অনেকে পায়ে হেটে পাড়ি দিচ্ছিলেন পথ। বুধবার সকাল ১১টায় এমনই এক পথচারী পা পিছলে নালায় ডুবে যায়। 

স্থানীয়দের থেকে কল যায় আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের হেল্পলাইনে। তাৎক্ষণিক আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল রওনা দেয় মুরাদপুরে। স্থানীয়দের এমন খবরের কোন কূলকিনারা না পেয়ে তারা ফিরে আসে। তবে কিছুক্ষণ পর আবারো পাঁচ সদস্যের একটি টিম নিয়ে ঘটনাস্থলে রওনা দেয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের টিমের অভিযান চলছে।

আবদুল্লাহ নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, তিন ঘণ্টা মুরাদপুর ফ্লাইওভারের কাছে আটকে আছি। মুরাদপুরে একজন মানুষ নালায় পড়ে যাওয়ার খবরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসেছে।'

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিতে দেখা যায়, মুরাপদুর মোড়ে লুঙ্গি পরিহিত মধ্য বয়সী একজন পুরুষ নালার পাশ দিয়ে হাটছিলেন। মূহুর্তেই পা পিছলে তিনি নালায় পড়ে যান। কয়েকজন চেষ্টা করেও তাকে তুলতে পারেনি। তিনি স্রোতে হারিয়ে যান৷ 

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের টিম লিডার বিপ্লব দে সিভয়েসকে বলেন, ‘একজন পথচারী ডুবে যাওয়ার খবর পেয়ে আমরা অভিযানে এসেছি। অভিযান চলছে।’

এ বিষয়ে পাঁচলাইশ থানার জাহিদুল কবীর বলেন, ‘এই ধরণের খবর আমরা পাইনি।’

মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাট, ষোলকবহর, মুরাদপুর, ২ নম্বর গেট, প্রবর্ত্তক মোড়, চকবাজার, কাপাসগোলা, ডিসি রোড, ষোলশহর, জামালখান, বাকলিয়া, হালিশহর, আগ্রাবাদ, সিডিএ, আবাসিক এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় কোথাও হাঁটু, কোথাও কোমরপানি জমেছে। এ কারণে সকালে ভোগান্তিতে পড়তে হয় অফিসগামী মানুষের। গত ২৪ ঘণ্টায় (বেলা ১২টা) পর্যন্ত আবহাওয়া অফিস ১১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে।

এরআগে গত মাসে ২ নম্বর গেট মেয়রগলিতে খালে পড়ে সিএনজি চালকসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছিল। তারও আগে জলাবদ্ধতায় বহদ্দার হাটে নালায় পড়ে গিয়েছিল যাত্রীসহ একটি সিএনজি অটোরিকশা। পরে স্থানীয়রা তাদের জীবিত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়