Cvoice24.com

ছয় বছর ধরে গৃহকর্তার ধর্ষণে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহকর্মী

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:৪৯, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
ছয় বছর ধরে গৃহকর্তার ধর্ষণে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহকর্মী

ছয় বছর ধরে নানা প্রলোভন দেখিয়ে গৃহকর্মীকে ধর্ষণ করে আসছে গৃহকর্তা। গৃহকর্তার স্ত্রীকে বিষয়টি জানালেও মেলেনি কোন সুরাহা, উল্টো কপালে জুটেছে হুমকি-ধমকি। সর্বশেষ গত জানুয়ারিতে ধর্ষণের শিকার হন তিনি। এক পর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই গৃহকর্মী। এতে বাধে বিপত্তি। এ ঘটনায় ঘর থেকে ওই গৃহকর্মীকে বের করে দিলে গৃহকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভিকটিম।

অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) নগরের পাহাড়তলী থানার মাইট্টাইল্লা পাড়া নাছিরের বিল্ডিংয়ের ৪র্থ তলার একটি ভাড়া বাসা থেকে অভিযুক্ত গৃহকর্তা মো. সিরাজ (৫০) ও তার স্ত্রী সাহেদা আক্তার পিংকিকে (৩২) গ্রেপ্তার করে পাহাড়তলী থানা পুলিশ। 

জানা গেছে, গ্রেপ্তার গৃহকর্তা মো. সিরাজ সন্দ্বীপ থানার ফজল হক চেয়ারম্যানের বাড়ীর মৃত রুহুল আমিনের ছেলে এবং গৃহকর্তার স্ত্রী সাহেদা আক্তার পিংকি একই এলাকার মৃত সিদ্দিক আহাম্মদ মাস্টারের মেয়ে। 

পুলিশ জানায়, ২০১৫ সাল থেকে বিভিন্ন সময়ে ভিকটিমকে ধর্ষণ করে আসছিল গৃহকর্তা মো. সিরাজ। সর্বশেষ গত ৫ জানুয়ারি আবারও ধর্ষণের শিকার হন ওই গৃহকর্মী। বর্তমানে ভিকটিম আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা। বিষয়টি আরেক গৃহকর্তার স্ত্রী সাহেদা আক্তারকে জানালে সে ভিকটিমকে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে বাসা থেকে বের করে দেয়। ভিকটিমের দায়ের কররা অভিযোগের ভিত্তিতে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘ভুক্তভোগীর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে ওই গৃহকর্তা ও তার স্ত্রীকে বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভুক্তভোগীকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

-সিভয়েস/টিএম/এএ

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়