Cvoice24.com

খেলনা কেনার অজুহাতে দোকানিকে ব্যস্ত রেখে চুরি, অতঃপর ধরা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৪৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
খেলনা কেনার অজুহাতে দোকানিকে ব্যস্ত রেখে চুরি, অতঃপর ধরা

নগরের আকবরশাহ থানার পশ্চিম ফিরোজ শাহ এলাকায় প্রতিদিনের মতো সকালে দোকান খুলেন মো. একরামুল করিম। আসে ক্রেতাও। তবে তারা কিছু কিনতে নয় এসেছিল দোকানের মালামাল ও টাকা চুরি করতে। চোরচক্রের সদস্যরা তাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী চুরি করে পালিয়ে গেলেও ধরা পড়তে হয় পুলিশের হাতে। 

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯টা থেকে রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭টা পর্যন্ত নগরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চুরির ঘটনায় জড়িত ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার ৭শ’ টাকা, ১টি সিএনজি, ২টি এলইডি টিভি ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলেন— মোহাম্মদ আলমগীর (২৭), মো. মনজুর আলম (২৫), মোহাম্মদ লিটন (২৬), মো. শওকত (২৬), মো. আব্দুস শুকুর মানিক (২৬) ও মো. ছগির ওরফে সাগর (৫২)।

পুলিশ জানায়, গত ১৮ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দোকান খুলেন মো. একরামুল করিম। এসময় তার দোকানে অজ্ঞাত ৪ জন ব্যক্তি আসেন। তাদের মধ্যে ২ জন খেলনা কেনার অজুহাত দেখিয়ে দোকানদারকে ব্যস্ত রাখে এবং অপর ১ জন দোকানদারের পিছনে থাকা কাধ ব্যাগটি নিয়ে যায়। ওই ব্যাগে নগদ ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা, ১টি চেক বই ও কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিল। চুরির ঘটনায় দোকান মালিক বাদি হয়ে আকবরশাহ থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করে। পরে নগরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে চুরির সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 

আকবরশাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির হোসেন সিভয়েসকে বলেন, ‘সংঘবদ্ধ পেশাদার চোরচক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে  নগদ ১০ হাজার ৭শ’ টাকা, ১টি সিএনজি, ২টি এলইডি টিভি ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা নগরে চুরি, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত।’

তিনি আরও বলেন, গ্রেপ্তার ছগির ওরফে সাগর ছাড়া বাকিদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

-সিভয়েস/আইএইচ/এমএম

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়