Cvoice24.com

আপন ভাই ও স্ত্রীসহ পুলিশের হাতে ধরা ‘চোর পরিবার’

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:২৭, ২৫ অক্টোবর ২০২১
আপন ভাই ও স্ত্রীসহ পুলিশের হাতে ধরা ‘চোর পরিবার’

রাতভর একসঙ্গে রিকশা চড়ে রেকি করে তিনভাই। সুযোগ বুঝে অন্ধকার বাসার গ্রিল কেটে একভাই লুটে নেয় নগদ টাকাপয়সা, স্বর্ণালঙ্কার ও মূল্যবান জিনিসপত্র। অন্য দুই ভাই আর রিকশাচালক বাইরে বসে পাহারা দেয় মানুষকে। 

জামালখানে এবিসি মাহাবুব হিলস নামে একটি ভবনে চুরির ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার (২৫ অক্টোবর) এসব তথ্য জানিয়েছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় নগদ ১ লাখ ৫ হাজার টাকা, ৭০০ ইউএস ডলার, ডায়মন্ডের হাতের ১৫টি রিং, ডায়মন্ডের কানের ৪ জোড়া দুল, ডায়মন্ডের নাকের ১টি নথ, স্বর্ণের গলার ১টি চেইন, ডায়মন্ডের ১টি ব্রেসলেট ও ডায়মন্ডের ১টি চুলের ক্লিপ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলেন—আপন তিনভাই ইব্রাহিম, মনির ও রহিম, মনিরের স্ত্রী নয়নতারা আক্তার ও রিকশাচালক মো. জাহাঙ্গীর।

পুলিশ জানায়,  গত ১১ অক্টোবর জামালখানের এবিসি মাহাবুব হিলস নামে একটি ভবনে চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আবরারা বেগম নামে ৭০ বছর বয়সী এক নারী থানায় মামলা করেন। মামলার সূত্রধরে ১৩ অক্টোবর ইব্রাহিম খলিলকে পুরাতন বিমান অফিস এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর চুরির কথা স্বীকার নেয়। পরে তার দেওয়া তথ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী নয়নতারা আক্তারকেও গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দুজনকে সঙ্গে নিয়ে ব্যাটারি গলি থেকে মো. জাহাঙ্গীর ও তুলাতলী গোয়াল পাড়া এলাকায় থেকে মো. রহিমকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীন বলেন, গ্রেপ্তার পাঁচ পেশাদার চোরচক্রের সদস্য। তারা মানুষের বাসাবাড়ির গ্রিল আর তালা কেটে মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে নিতো। এদের মধ্যে তিনজন আপন ভাই, একজন তাদের স্ত্রী ও অন্যজন রিকশাচালক। জামালখানে একটি ভবনে চুরির ঘটনা তদন্ত করে গিয়ে তাদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। রিকশা চালক জাহাঙ্গীর এর আগে ছিনতাইয়ের মামলায় ৮ বছর সাজা খেটে এসে ফের চুরিতে নেমেছে। মনির ও রহিমের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী, চকবাজার থানায় পৃথক দুটি মামলা আছে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়