Cvoice24.com

মাইক্রোবাস ওভার টেকিং করায় বাস চালককে হত্যা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:০৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১
মাইক্রোবাস ওভার টেকিং করায় বাস চালককে হত্যা

বাস চালককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩।

চট্টগ্রামের হাটাহাজারী থেকে শহরের দিকে আসার পথে আসামিদের মাইক্রোবাসকে ওভার টেকিং করে একটি বাস। একই সঙ্গে পথ রোধ করে বাসে যাত্রী উঠা-নামা করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই বাস চালক আব্দুর রহিমকে (৪৬) নামিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে আসামিরা। এতে বাস চালক গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের সদস্যরা রাতেই তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক ওই বাস চালককে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় জড়িত মো. আনোয়ার হোসেন (২৮), মো. রবিউল (২৩) ও মো. মোর্শেদকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে নগরের বায়েজিদ থানার আমিন কলোনি এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ উত্তরের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিএমপি (উত্তর) এর উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘আসামিদের পথ রোধ করায় চৌধুরীহাট পেট্রোল পাম্প এলাকায় অন্য একটি বাস (চট্টমেট্রো জ- ১১-১৬৬২ নম্বর) দেখে মাইক্রোবাসের যাত্রীদের ধারণা হয়, এটাই বোধহয় সেই বাস। সেই সন্দেহ থেকে তারা বাসটির গতি রোধ করে ওই বাসের চালক আনোয়ার হোসেন বাঁচাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এতে ওই বাসের চালক অজ্ঞান হয়ে পড়েন। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলে। তবে মাইক্রোবাসের যাত্রীদের তাদের ভুল বুঝতে পেরে সেখান থেকে দ্রুত সরে যান।’

মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘মাইক্রোবাস যাত্রীরা বালুছড়া এলাকায় এলে তারা আসল বাসটি দেখতে পান এবং বাসটির পিছু নেন। আমিন জুট মিলের উত্তর গেটে পৌঁছে তারা বাসটির গতিরোধ করেন এবং চালক আব্দুর রহিমকে বাস থেকে নামিয়ে মারধর করেন।’

বায়েজিদ থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ ওই মাইক্রোবাস যাত্রীদের সন্ধানে কাজ শুরু করে। হাটহাজারী থানার চৌধুরী হাট থেকে নগরের মুরাদপুর পর্যন্ত ৭০টি সিসি ক্যামেরার ভিডিও সংগ্রহ করে অভিযুক্তদের শনাক্তে কাজ করা হয়। পরে ভোর রাতে জড়িত তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

উল্লেখ্য, গত ২৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় আমিন জুট মিলে এলাকায় হাটহাজারি থেকে শহরের দিকে আসা এক বাস চালককে মারধর করেন মাইক্রোবাস আরোহীরা। তাদের অভিযোগ ছিল, দুর্ঘটনা ঘটতে পারে জেনেও ওই বাসকে মাইক্রোবাসের দিকে চাপিয়ে আনছিলেন চালক। পিটুনিতে আহত বাস চালক আব্দুর রহিমকে (৪৬) হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পরদিন হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে হাটহাজারি ও অক্সিজেন এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন শ্রমিকরা।

-সিভয়েস/আইএইচ/এমএম

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়