Cvoice24.com

পানিতে নেই ডায়রিয়ার জীবাণু—দাবি ওয়াসার

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০১:১০, ২৫ মে ২০২২
পানিতে নেই ডায়রিয়ার জীবাণু—দাবি ওয়াসার

ছবি-সংগৃহিত

চট্টগ্রামে গত এক সপ্তাহ ধরে বেড়েছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। শুক্রবার (২০ মে) থেকে মঙ্গলবার (২৪ মে) পর্যন্ত পাঁচদিনেই ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) হাসপাতালেই ভর্তি হয়েছেন ১৮৮ জন ডায়রিয়া রোগী। তাঁদের মধ্যে মারা গেছেন একজন। 

এই রোগীদের বেশিরভাগই এসেছেন হালিশহর থেকে। বন্দর এলাকা থেকে আসা রোগীও আছে কিছু।

বিআইটিআইডির চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, অত্যধিক গরমের কারণে কোনো খাবার বা পানি থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন রোগীরা। তাদের মধ্যে ২১ শতাংশ কলেরায় ভুগছেন। মঙ্গলবার (২৪ মে) বিআইটিআইডিতে ৪৩ জন রোগী ভর্তি ছিলেন। 

তবে চট্টগ্রাম ওয়াসার দাবি, গ্রাহকের কাছে তারা যে পানি সরবরাহ করছে সেই পানিতে কোনো সমস্যা নেই। এসব এলাকায় সরবরাহ করা পানি পরীক্ষা করে কোনো জীবাণু খুঁজে পায়নি তারা।

ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ার খবর পেয়ে গত রোববার থেকে সতর্ক হয় ওয়াসা। ওইদিন থেকে নিয়মিত হালিশহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে পানির নমুনা নিয়ে নিজস্ব ল্যাবে পরীক্ষা করছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা তিনদিন নমুনা পরীক্ষা করেছে সংস্থাটি। তবে কোনো এলাকার পানিতেই জীবাণুর অস্বিত্ব মেলেনি।

এ বিষয়ে ওয়াসার প্রধান প্রকৌশলী মাকসুদ আলম বলেন, ‘ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ার খবর পেয়েই আমরা হালিশহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করতে শুরু করি। তিনদিনে কোনো নমুনাতেই জীবাণুর অস্বিত্ব পাইনি।’

মাকসুদ আলম আরও বলেন, ‘হালিশহরের আনন্দবাজার এলাকা পর্যন্ত ওয়াসার পাইপলাইন আছে। এসব এলাকায় ডায়রিয়া হচ্ছে না। অন্য জায়গাগুলোতে ডিপ টিউবওয়েলের পানি ব্যবহার করেন বাসিন্দারা। এ পানি থেকেই সমস্যা হতে পারে। কেননা যেসব এলাকায় ডিপ টিউবওয়েলের পানি পান করা হচ্ছে সেখানেই ডায়রিয়া রোগীর প্রকোপ বেড়েছে।’

বিআইটিআইডির সহযোগী অধ্যাপক মামুনুর রশিদও জানিয়েছেন একই কথা। তিনি বলেন, ‘যেসব রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন তাঁরা আমাদের বলেছেন ডিপ টিউবওয়েলের পানি পান করেন। তারা আবার পানি ফুটানও না। এ কারণে এসব পানি পান করে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা।’
 
ওয়াসার হোক কিংবা ডিপ টিউবওয়েলের হোক–সবাইকে সব পানিই ফুটিয়ে পান করার পরামর্শ দিয়েছেন এই চিকিৎসক । কেননা, ডায়রিয়া পানিবাহিত রোগ। সেজন্য পানি ফুটিয়ে পান করলে ডায়রিয়ার ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়