Cvoice24.com

দুদকের জালে আনোয়ারার কোটিপতি ‘ইয়াবা ব্যবসায়ী’

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৬:৩৬, ২৩ জুন ২০২২
দুদকের জালে আনোয়ারার কোটিপতি ‘ইয়াবা ব্যবসায়ী’

দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়।

করেন না কোন চাকুরি, সাগরে ট্রলারের মাধ্যমে মাছ ধরে বিক্রি করার দাবি করলেও নেই তার কোন দালিলিক প্রমাণ। তবুও তিনি কোটিপতি! অভিযোগ ছিল—সাগরে মাছ ব্যবসার আড়ালেই চলছে ‘ইয়াবার’ কারবার। আর তাতেই বনে গেছেন কোটিপতি। 

চট্টগ্রামের ইয়াবার ব্যবসায়ী কেন্দ্রখ্যাত আনোয়ারা উপজেলার গহিরার জসিম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মিলেছে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য। অবশ্য দুর্নীতি দমন কমিশনের দীর্ঘ অনুসন্ধানে জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন করার দালিলিক প্রমাণ ইতোমধ্যে ওঠে এসেছে। আর তাতে দুদকের মামলার জালে আটকাতে হয়েছে জসিম উদ্দিনকে। 

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে ৩ কোটি ৫০ লাখ ৬০ হাজার ২০১ টাকার জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জন এবং দুদকের কাছে দাখিলকৃত সম্পদের মধ্যে ৯১ লাখ ৩০ হাজার ২০১ টাকার সম্পদ গোপন করায় মামলা করেছে দুদক। 

দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয়-চট্টগ্রাম-২ এ মামলাটি দায়ের করা হয়। একই কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল মালেক বাদি হয়ে মামলাটি করেন। দুদকের বিশ্বস্ত সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। 

মামলার এজহারে বলা হয়,  আনোয়ারা উপজেলার গাহিরার মৃত আবুল বশরের ছেলে জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে মাদক ব্যবসার মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধান  চালায় দুদক। প্রাথমিকভাবে তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের প্রমাণ পাওয়া যায়। পরবর্তীতে দুদক কমিশনের সিদ্ধান্তক্রমে সম্পদ বিবরণী দাখিলের নির্দেশ প্রদান করা হলে তিনি ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর দুদকের কাছে সম্পদবিবরণী দাখিল করেন। তাতে জসিম উদ্দিন নিজের নামে ৩ কোটি ২২ লাখ ৫ হাজার টাকার স্থাবর এবং ১৪ লাখ টাকার অস্থাবর সম্পদসহ সর্বমোট ৩ কোটি ৯৮ লাখ ১৩ হাজার ৮৫৪ টাকার সম্পদ ঘোষণা দেন। কিন্তু দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণী যাচাইকালে তার নামে ৪ কোটি ২৭ লাখ ৩৫ হাজার ২০১ টাকার সম্পদ পাওয়া যায়। অর্থাৎ তিনি দুদকে কাছে ৯১ লাখ ৩০ হাজার ২০১ টাকার সম্পদ গোপন করেন। এছাড়া যাচাইকালে ঘোষিত সম্পদের ৩ কোটি ৫০ লাখ ৬০ হাজার ২০১ টাকার সম্পদের হিসাব দিতে পারেননি জসিম উদ্দিন। তার আয়ের সাথে এসব সম্পদের কোন মিল পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ এসব সম্পদ তার আয় বর্হিভূত সম্পদ বলে বিবেচিত।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়