Cvoice24.com

চট্টগ্রামে ওজনে কম দিয়ে হাতেনাতে ধরা আরও ৯ ফিলিং স্টেশন

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ৯ আগস্ট ২০২২
চট্টগ্রামে ওজনে কম দিয়ে হাতেনাতে ধরা আরও ৯ ফিলিং স্টেশন

চট্টগ্রামে জ্বালানি নিয়ে নয়ছয় রুখতে দ্বিতীয় দিনের মতো অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার (৮ আগস্ট)  তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে সঙ্গে নিয়ে এ অভিযানে নামেন খোদ জেলা প্রশাসক। এদিন নগরের ২ নম্বর গেট, নাসিরাবাদ, প্রবর্তক, চান্দগাঁও, বাকলিয়া, টাইগারপাস, পাহাড়তলী, আকবরশাহ এলাকায় ওজনে কারচুপি, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না রাখার অপরাধে ৯টি ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা করেন।

এর আগে গতকাল সোমবার অক্সিজেনের দুটি ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা করা হয়।

নগরের ২ নম্বর গেট ও চান্দগাঁও এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক। এসময় খান এন্ড ব্রাদাসকে ১০ হাজার টাকা, ফসিল পেট্রোল পাম্পকে ১০ হাজার টাকা, কর্ণফুলী ফিলিং স্টেশনকে ২০ হাজার টাকা, মীর ফিলিং স্টেশনকে ১০ হাজার টাকাসহ মোট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

অন্যদিকে নগরের নাসিরাবাদ ও প্রবর্তক এলাকায় অভিযান চালিয়ে আলহাজ্ব ফয়েজ আহমেদ এন্ড  সন্সকে ১০ হাজার টাকা, বাদশা মিয়া ফিলিং স্টেশনকে ১০ হাজার টাকাসহ মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন চান্দগাঁও সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা। 

এছাড়া টাইগারপাস, ডিটি রোড, পাহাড়তলী ও আকবরশাহ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্লাবন কুমার বিশ্বাস। এসময় তিনি ওই এলাকার রিফুয়েলিং স্টেশন ইউনিট- ১'কে ৫০ হাজার টাকা, নূর এ মদিনা সিএনজি ফিলিং স্টেশনকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেন, নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্যে বিক্রি, ওজনে কম দেওয়া, লাইসেন্স না থাকা, জ্বালানি তেলের মান নিয়ে অভিযোগ থাকায় আজ নগরের বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনে অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন অনিয়মের কারণে জরিমানা করা হয়। এছাড়া ফিলিং স্টেশন প্রতিষ্ঠায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অনাপত্তিপত্র, বিষ্ফোরক অধিদপ্তর ও পরিবেশ অধিদপ্তরের লাইসেন্স প্রয়োজন হলেও সরেজমিনে গিয়ে অনেকেরই এসব পাওয়া যায়নি। তাই তাদের জরিমানা করা হয়েছে। এ ধরনের অভিযান চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি।

সিভয়েস/এমএম

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়