Cvoice24.com

ঋণ খেলাপি নুরজাহান গ্রুপের টিপু সুলতান ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:২৫, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
ঋণ খেলাপি নুরজাহান গ্রুপের টিপু সুলতান ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার

নুরজাহান গ্রুপের পরিচালক টিপু সুলতান

ব্যাংক ঋণের টাকা মেরে ঢাকার অভিজাত গুলশান এলাকায় আত্মগোপনে থাকা চট্টগ্রামভিত্তিক নুরজাহান গ্রুপের পরিচালক টিপু সুলতানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ২১টি ঋণ খেলাপির মামলার পরোয়ানা রয়েছে। এরমধ্যে ১৮টিতেই তার বিরুদ্ধে সাজার আদেশ হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে খুলশী থানার একটি টিম ঢাকার গুলশান ১ এর নিজ বাসা থেকে টিপু সুলতানকে গ্রেপ্তার করে চট্টগ্রামে আনে। এরপর শুক্রবার আদালতের হাজির করা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ সন্তোষ কুমার চাকমা।

নুরজাহান গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান মেরিন ভেজিটেবল অয়েল লিমিটেডের চেয়ারম্যান টিপু সুলতানের বিরুদ্ধে মোট ঋণ খেলাপির ২০টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। এরমধ্যে ১৮টিতেই সাজা হয়েছে। সেগুলো হলো— খুলশী থানায় ৭টি, পাঁচলাইশে ৮টি ও কোতয়ালী থানায় ২টি। এছাড়া আদালতে বিচারাধীন আরও তিন মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আছে।
 
এর আগে, গত ২০ সেপ্টেম্বর ভেজাল ভোজ্যতেল বিক্রির অপরাধে বিএসটিআইয়ের করা মামলায় নুরজাহান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জহির আহাম্মদ রতনকে এক বছরের কারাদণ্ড ও আড়াই লাখ টাকার অর্থদাণ্ডাশে আদেশ দেন আদালত। 

এক সময়ের চট্টগ্রামের ভোগপণ্যের বনেদি ব্যবসায়ীদের মধ্যে নুরজাহান গ্রুপ অন্যতম। ভোগ্যপণ্য ব্যবসায় বড় অংকের লোকসান, ঋণের টাকায় জমি কেনা ও কর্ণধারদের ভোগবিলাসের কারণে গ্রুপটির কাছে বিভিন্ন ব্যাংকের বড় অংকের টাকা আটকে যায়। এই পর্যন্ত গ্রুপটির কাছে বিভিন্ন ব্যাংকের খেলাপি ঋণের পরিমাণ ২ হাজার ৬০০ কোটি টাকা।

মাররিন ভেজিটেবল অয়েলস লিমিটেড, নুরজাহান সুপার অয়েল লিমিটেড, জাসমির ভেজিটেবল অয়েল লিমিটেডসহ গ্রুপটির কমপক্ষে ২০ টি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ছিল। কিন্তু ব্যবসায়িক লোকসানে পড়ে বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে খেলাপি হয়ে গত পাঁচ-সাত বছরে গ্রুপটির বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেছে।

সিভয়েস/এডি

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়