Cvoice24.com

ছাইয়ের ভেতর কানের দুল খুজছিলেন পোশাক শ্রমিক তাহমিদা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৪৪, ৪ অক্টোবর ২০২৩
ছাইয়ের ভেতর কানের দুল খুজছিলেন পোশাক শ্রমিক তাহমিদা

পোশাককর্মী তাহমিদা।

পোশাক কর্মী তাহমিদা। বুধবার ভোরে প্রতিবেশীদের ‘আগুন আগুন’ চিৎকারে ঘুম ভাঙে তাঁর। তখনও দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। কারও দোকান পুড়ছে, কারও বা বাসা।

দুর্ঘটনার পর সকাল থেকে পুড়ে যাওয়া ছাই থেকে অবশিষ্ট আমানত কুঁড়িয়ে নিচ্ছিলেন পোশাক কর্মী তাহমিদা। তিনি বলেন, সম্বল বলতে অনেক কষ্টে জোড়ানো এক জোড়া স্বর্ণের দুল, ঘর খরচের ৩ হাজার টাকা। সামান্য মনে হলেও স্বর্ণের জোড়া দুল আর টাকা আমার জীবনের বড় সম্বল। এই শহরে কেউ কারও নয়, টাকা না থাকলে একটা দিনও চলা যায়না, উপোস থাকতে হয়। ‘আগুন আগুন’ চিৎকারে ঘুম থেকে উঠেছি। জীবন বাঁচাতে কিছুই নিয়ে বের হইনি।

বুধবার ভোরে চোখ মেলতেই এমন পরিস্থিতেতে বায়েজিদের আমিন জুট মিলের পাশে আমিন কলোনীতে। অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনায় সর্বস্বহারা ৪০ পরিবার, দুটি ঝুট মিল ও ৬ দোকান মালিক।

 

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক আবদুল হালিম জানান, আগুনের খবর পেয়ে ৬টা ৪৫ মিনিটে আমাদের ১ম ইউনিট পৌঁছায়। ৭টা ১০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ওই কলোনির প্রায় ৭০টি ঘর পুড়ে গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। বিস্তারিত তদন্ত করে জানা যাবে।


 

সর্বশেষ