image

আজ, বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০ ,


‘আইকন ও শিল্পপতি’ শব্দগুলোকে সস্তা বানাবেন না: তানভীর শাহরিয়ার রিমন (ভিডিওসহ)

‘আইকন ও শিল্পপতি’ শব্দগুলোকে সস্তা বানাবেন না: তানভীর শাহরিয়ার রিমন (ভিডিওসহ)

ছবি : সিভয়েস

তানভীর শাহরিয়ার রিমন। নিজ মেধা ও যোগ্যতায় একজন সফল কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব ও জনপ্রিয় পাবলিক স্পিকার হিসেবে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন। সম্প্রতি তিনি মুখোমুখি হয়েছিলেন সিভয়েস’এর। দেশের তরুণ যারা নিজেকে কর্পোরেট জগতে প্রতিষ্ঠিত করতে চান তাদের জন্য তিনি তুলে ধরেছেন গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা। সেই সাথে সমসাময়িক কিছু বিষয় নিয়ে ব্যক্ত করেছেন নিজস্ব কিছু ভাবনা। তারই চুম্বক অংশ তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন সিভয়েস প্রতিবেদক হিমাদ্রী রাহা। 


সিভয়েস- নিজ মেধা ও যোগ্যতায় আপনি নিজেকে দেশের একজন সুপরিচিত কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। অনেকেই বলে থাকেন আপনি image একজন কর্পোরেট আইকন। নিজেকে কিভাবে এই অবস্থানে নিয়ে এসেছেন?

তানভীর শাহরিয়ার রিমন-দেখুন প্রথমেই বলতে চাই, আমি কোন কর্পোরেট আইকন নই। আইকন অনেক বড় শব্দ। আমি এখনো ওই জায়গায় পৌঁছাতে পারিনি। আজকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কারণে আইকন কিংবা শিল্পপতি শব্দগুলোর যথেচ্ছ অপব্যবহার হচ্ছে। তাই আমাকে যারা কর্পোরেট আইকন বা ইয়ুথ আইকন বলেন তাদের উদ্দ্যেশে বলি, আইকন বা শিল্পপতি এই শব্দগুলোকে সস্তা বানাবেন না। 

সিভয়েস- যাই হোক নিজেকে তো একটা সফল অবস্থানে নিয়ে এসেছেন। এটিকে কিভাবে মূল্যায়ণ করবেন?

তানভীর শাহরিয়ার রিমন- জীবনে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি তা হলো ইচ্ছাশক্তি। আপনি যাই করুন না কেন, আপনার ভেতরে যদি ইচ্ছাশক্তি না থাকে সে কাজে আপনি কখনো সফল হবেন না। তাই নিজের মধ্যে আগে ইচ্ছাশক্তির বীজ বপন করতে হবে। প্রতিটি মানুষই মেধা নিয়ে জন্মায়। কিন্তু সেই মেধার সাথে যদি ইচ্ছাশক্তির সমন্বয় না ঘটে তবে সফলতা অর্জন অনেক কঠিন। আমি এটা বিশ্বাস করি, আমি যতকিছু করেছি যদিও মনে করিনা আমি এখনো কিছু অর্জন করতে পেরেছি, এর সবকিছুই আমার ইচ্ছাশক্তির কারণে। তাই সফলতার জন্য ইচ্ছাশক্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। স্টিভ জবস একটা কথা  বলেছেন, stay hungry & stay foolish । আমি নিজেকে বোকাই ভাবতে পছন্দ করি। তাই সবসময় জানার জন্য নিজেকে ক্ষুধার্ত রাখতে হবে।


সিভয়েস- একটা বিষয় লক্ষ্যণীয়, আমাদের দেশে শিক্ষাগত যোগ্যতার সাথে পেশার সমন্বয় নেই। যেমন কেউ অনার্স মাস্টার্স শেষ করলো এক সাবজেক্টে। কিন্তু পেশাগত দিক থেকে দেখা গেলো তার ট্র্যাক ভিন্ন। এই বৈষম্যটা কেন?

তানভীর শাহরিয়ার রিমন- দেখুন আমি পড়ালেখা করেছি কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে। কিন্তু যখন আমি অনার্স লাইফের মাঝামাঝি আসি, তখন মনে হয় এই ট্র্যাক আমার না। পরে যখন অনার্স শেষ করে এমবিএ কমপ্লিট করে রিয়েল এস্টেট কোম্পানিতে চাকরি শুরু করলাম তখন বুঝলাম, হ্যাঁ এই ট্র্যাকটাই আমার। আমি এই পেশাকে মন থেকে নিয়েছি। যার  ফলে আমি খুবই স্বল্প সময়ের মধ্যেই মার্কেটিংয়ের হেড হিসেবে পদোন্নতি পাই একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে। আমি যখন রিয়েল এস্টেট পেশায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করছিলাম তখন বিভিন্ন ব্যাংক থেকে আমার কাছে অফার আসে এমনকি বিভিন্ন মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানি থেকেও অফার আসে। কিন্তু আমার লক্ষ্য স্থির ছিলো। তাই আমি অন্য পেশায় নিজেকে ডাইভার্ট করিনি। আমার মনে হয় এই স্থির লক্ষ্যই আমাকে আজকে এই অবস্থায় আসতে সহযোগিতা করেছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো নিজের মধ্যে থাকা স্বপ্নকে লালন করা উচিত। আরোপিত বা চাপিয়ে দেওয়া বিষয় নিয়ে বেশিদূর আগানো যায়না। যার ফলশ্রুতিতে শিক্ষার সাথে  পেশার একটি দৃশ্যমান বৈপরীত্য তৈরি হয়েছে। 

সিভয়েস- এই শিক্ষার সাথে পেশার একটি বৈপরীত্য। এ থেকে পরিত্রাণের উপায় কি?

তানভীর শাহরিয়ার রিমন- এটার জন্য আমাদের অভিভাবকরাই দায়ী। আমাদের অভিভাবকরা মনে করেন, আমার সন্তানকে ডাক্তারই হতে হবে, ইঞ্জিনিয়ারই হতে হবে কিংবা বিসিএস ক্যাডারই হতে হবে। আমাদের এই ধ্যান ধারণা থেকে বের হতে হবে। এই চাপিয়ে দেওয়া বিষয়ের কারণেই দেশের বেশিরভাগ শিক্ষার্থী তাদের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেন না। আমাদের অভিভাবকদের উচিত সন্তান কি বিষয়ে আগ্রহী তা জানা। সে যে বিষয়ে নিজের ভবিষ্যৎ গড়তে চায় সে বিষয়টাকে প্রধান্য দিতে হবে। তবে হয়তো শিক্ষার সাথে পেশার যে বৈপরীত্য তা কমে আসবে।

সিভয়েস- সবশেষ প্রশ্ন, দেশের তরুণদের জন্য আপনার কি দিকনির্দেশনা থাকবে?

তানভীর শাহরিয়ার রিমন- দেখুন আমি আগেও বলেছি, ইচ্ছাশক্তিই আপনাকে সফলতার দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাবে। আর নিজেকে প্রতিযোগিতামূলক পেশার জন্য তৈরি রাখতে হবে। নিজের বায়োডাটা তৈরি করতে পারাও কিন্তু একটা আর্ট। এই বিষয়ে জোর দিতে হবে। মোট কথা সময়ের সাথে নিজে আপডেট রাখতে হবে। আর একটা বিষয়, আমাদের লক্ষ্য স্থির রাখতে হবে। আমার মতে, ইচ্ছাশক্তি আর স্থির লক্ষ্য সফলতার একমাত্র নিয়ামক।

সিভয়েস- আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের সময় দেয়ার জন্য।

তানভীর শাহরিয়ার রিমন- আপনাকেও ধন্যবাদ। সেই সাথে সিভয়েস’এর সকল পাঠকদেরও ধন্যবাদ।

সিভয়েস/এসএ/এমডিকে
 

আরও পড়ুন

২৬ নং ওয়ার্ড উত্তর হালিশহর: মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে কাউন্সিলর হতে চান রেজাউল আলম রনি

আলহাজ্ব শাহ আলমের পুত্র মোঃ রেজাউল আলম রনি। পি,এইচ,আমিন স্কুল ছাত্রলীগের বিস্তারিত

‘গান গাইলে বাড়ির জানালায় পাথর মারতো’

কুমার বিশ্বজিৎ জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পীর জন্ম চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে। তিনি বিস্তারিত

দশভুজা সাহানা বাজপেয়ী

সাহানা বাজপেয়ী দুই বাংলার প্রায় সব শ্রেণীর দর্শক-শ্রোতার প্রিয় সঙ্গীত বিস্তারিত

প্রত্যাশার বিরাট বোঝা নিয়ে এবারের বিজয় এসেছে : বাদল (ভিডিওসহ)

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও) আসনের সাংসদ মইনউদ্দীন খান বাদল বিস্তারিত

 চোখ রাখুন সিভয়েস ফেসবুক পেইজে

আজ (১৫ নভেম্বর) রাত ৮টায় প্রচারিত হবে সিভয়েস ‘বিশেষ সাক্ষাৎকার’। বিস্তারিত

উচ্চশিক্ষায় নতুনত্ব আনতে চায় সিআইইউ

আজ থেকে দশ বছর আগেও চিত্রটা ভিন্ন ছিল। উচ্চশিক্ষর জন্যে চট্টগ্রাম থেকে বিস্তারিত

প্রতিবছর ১০ তরুণ উদ্যোক্তা তৈরি করবে জুনিয়র চেম্বার: মাশফিক আহমেদ (ভিডিও সহ) 

মাশফিক আহমেদ। সফল তরুণ উদ্যোক্তা। নিজ মেধা ও যোগ্যতায় সফলভাবে পালন করে বিস্তারিত

‌‘আমাদের দেশে মেন্টাল কাউন্সিলিংয়ের জায়গাটা ফাঁকা’ (ভিডিওসহ) 

আয়মান সাদিক তরুণ উদ্যোক্তা এবং টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা। সম্প্রতি বিস্তারিত

আমার জানাজায় সহস্রাধিক লোক না হলে আত্মার শান্তি হবে না- নিয়াজ মোর্শেদ এলিট (ভিডিও-সহ)

নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। তরুণ রাজনীতিবিদ। নিজের মেধা ও যোগ্যতায় ইতোমধ্যে স্থান বিস্তারিত

সর্বশেষ

মারধর থেকে যুবক খুন আকবরশাহ'য়

তর্কাতর্কির জের ধরে নগরের আকবরশাহ'র বিজয়নগর এলাকায় ছুরিকাঘাতে রনি বিস্তারিত

বাবুনগরী মুতাওয়াল্লী ও মুফতি হাবিবুর রহমান মুহতামিম নির্বাচিত

ফটিকছড়িতে অবস্থিত দেশের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষী দ্বীনিশিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিস্তারিত

চবি শিক্ষক খান তৌহিদ ওসমানের ইন্তেকাল

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বিস্তারিত

কম খরচে বৈদ্যুতিক অভাবনীয় আবিষ্কারে শরিফুল

একসময় বিদ্যুতের ব্যবহার মানুষকে বিস্মিত করেছিলো। এরপরে একে একে বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি