image

আজ, শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০ ,


রুপচর্চায় প্রয়োজনীয় গাছগাছালি

রুপচর্চায় প্রয়োজনীয় গাছগাছালি

বাজার থেকে কিনে আনা প্রসাধনীর উপরে ভরসা না করে বাড়িতেই বানিয়ে নিন রুপচর্চার বাগান। সিন্ধু সভ্যতা থেকেই রুপচর্চায় গাছগাছড়ার ব্যবহার। পরবর্তী কালে বিভিন্ন গাছগাছড়া ও ফুলের রস থেকেই প্রসাধনী তৈরি শুরু হয়। রুপচর্চার বাগানে রাখবেন যেসব গাছগাছালি......

তুলনা নেই তুলসীর

তুলসীর মঞ্জরি থেকেই নতুন গাছ তৈরি হয়। ফলে একটা তুলসী গাছ বাড়িতে থাকলে তার থেকেই একাধিক গাছ তৈরি হয়ে যায়। তুলসীর পাতা বাটা ত্বক ও চুল দুইয়ের পক্ষেই ভাল। ত্বকে কোনও ব্যাকটিরিয়া বাসা বাঁধতে দেয় না। আর স্ক্যাল্পে লাগালে খুসকিও image হয় না।

ভৃঙ্গরাজের রাজত্বে চুলের রমরমা

চুলের যত্নে ভৃঙ্গরাজও ভাল কাজ দেয়। বিশেষ করে আমলকী, হরিতকী ও বহেড়ার সঙ্গে ভৃঙ্গরাজ মিশিয়ে তেলে ফুটিয়ে নিতে হবে। তার পরে শ্যাম্পু করার আগের রাতে পুরো চুলে ভাল করে মেখে রাখলে খুসকি, চুলে পাক ধরা, চুল পড়ে যাওয়ার মতো অনেক সমস্যার মোকাবিলা করে। ভৃঙ্গরাজ গাছ পেতে আয়ুর্বেদের দোকানে খোঁজ করতে পারেন। আমলকী, হরিতকী গাছের জন্য অনেকটা জমির প্রয়োজন। তাই জায়গার অভাবে এগুলো কিনে নেওয়াই ভাল।

গোলাপেরই বাগে 

অনেকের বাগানেই এই গাছটি থাকে। ত্বকের যত্নে এর ব্যবহার বিবিধ। গোলাপের পাপড়ি ফুটিয়ে গোলাপজল তৈরি করে রাখতে পারেন। প্রত্যেক দিন স্নানের জলে এই গোলাপজল মিশিয়ে নিলে সারা দিনের ক্লান্তি কাটবে। অন্য দিকে গোলাপ জলকে টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন মুখে। আবার যাঁদের ঠোঁট কালো হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা রয়েছে, তাঁরা গোলাপের পাপড়ি বেটে, মধু সহযোগে ঠোঁটে লাগিয়ে রাখতে পারেন। এতে ঠোঁটের রং হালকা হয়ে আসবে।

অ্যালো ভেরার আলোয়

বহু বছর ধরে ত্বকের যৌবন ধরে রাখতে অ্যালো জেল ব্যবহার করা হয়ে আসছে। অ্যালো ভেরার জেলে ভিটামিন এ, সি এবং ই থাকে। ফলে ত্বককে ময়শ্চারাইজ় করে ত্বকের বলিরেখা দূর করতে এর বিকল্প কমই। এ ছাড়া ত্বকের পোড়া-কাটা দাগ মেলাতেও অ্যালো ভেরা খুব কাজে লাগে। অ্যালো ভেরা টবে পুঁতলে বেশ তাড়াতাড়ি বাড়ে। তবে তার জন্য প্রয়োজন একটু উষ্ণ আবহাওয়া। বাড়ির যে দিকে রোজ রোদ আসে, সে দিকেই অ্যালো ভেরা গাছ রাখতে পারেন। এতে গাছ বাড়েও তাড়াতাড়ি, পাতা বেশ পুরুষ্টও হয়। ফলে জেলের পরিমাণও বাড়ে।

যৌবন ধরে রাখতে জবা

ত্বকের ইলাস্টিসিটি ধরে রাখতে জবার জবাব নেই। যার জন্য এই গাছ বোটক্স গাছ নামেও পরিচিত। অন্য দিকে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টে ভরপুর থাকায় জবা ফুল দূষণের মোকাবিলা করতেও ত্বককে সাহস জোগায়। ফলে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি বা রাস্তাঘাটে ধুলো-ধোঁয়ায় ত্বক খুব একটা ক্ষতিগ্রস্ত হয় না। জবা ফুল চুলের জন্যও খুব ভাল। নারকেল তেলের সঙ্গে জবা ফুল ফুটিয়ে রোজ সেই তেল চুলে ও স্ক্যাল্পে লাগালে চুল ঘন হয়। জবা গাছের যত্ন নেওয়াও খুব কঠিন নয়।

ল্যাভেন্ডারে লালিত্য

এই গাছ করাও খুব কঠিন নয়। তবে রোদ ও জল জরুরি। ল্যাভেন্ডার গাছে ফুল আসতেও সময় লাগে। তবে ফুল এলে ভরে যায়। ল্যাভেন্ডারের পাপড়িগুলো একটা বাটিতে নিন। তার পরে একটি পাত্রে গরম জল ঢেলে এই পাপড়িগুলো তার মধ্যে ভিজিয়ে রাখুন। ঘণ্টাখানেক পরে পাপড়ি ছেঁকে জলটা নিয়ে তার মধ্যে ওটমিল পাউডার মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এই ফেসপ্যাক মুখে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের রং অনেক পরিষ্কার হবে। একইসঙ্গে ত্বক সতেজ থাকবে।

সৌন্দর্যে সূর্যমুখী

এই ফুলকে ন্যাচারাল সানস্ক্রিন বলা যেতে পারে। সূর্যমুখী ফুলে ভিটামিন ই থাকে প্রচুর পরিমাণে, যা ত্বকের দাগছোপ, বলিরেখা দূর করে। চুলের ডগা ফাটার মতো সমস্যারও মোকাবিলা করে। রূপচর্চায় উপকারী ভিটামিনের মধ্যে ই ভিটামিনের গুরুত্ব অপরিসীম। আর এই ভিটামিন বেশি থাকায় সূর্যমুখী ফুলও ব্যবহার করতে পারেন রূপচর্চায়। সূর্যমুখী বীজের তেলও রূপচর্চায় বহুল ব্যবহৃত। তবে এই ফুলের বাগান করতে অনেকটা জায়গার প্রয়োজন। 

জুঁইয়ের জাদুতে

এর জন্য অবশ্য খুব বেশি জায়গার প্রয়োজন নেই। ছোট টবেই জুঁইগাছ বাড়তে পারে। খুব বেশি যত্নেরও প্রয়োজন পড়ে না। কিন্তু সৌন্দর্যচর্চায় জুঁইয়ের গুরুত্ব অপরিসীম। জুঁই ফুলের নির্যাস, মধুর সঙ্গে মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। ত্বকের ময়শ্চার বজায় থাকবে। এ ছাড়া চুলের কন্ডিশনার হিসেবে, স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখতেও জুঁইয়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য। এর জন্য নারকেল বা আমন্ড তেলে জুঁই ফুল দিয়ে রাখুন। তেল মাখার আগে একটু গরম করে নিতে হবে। শ্যাম্পু করার ঘণ্টাখানেক আগে চুলে ও স্ক্যাল্পে এই তেল মাখুন। এতে স্ক্যাল্পে কোনও ব্যাকটিরিয়া বাসা বাঁধবে না। একই সঙ্গে স্ক্যাল্পে খুসকিও হবে না। চুলের কন্ডিশনিংও হবে।

গাছগুলো কিন্তু দুষ্প্রাপ্যও নয়। সহজেই নার্সারিতে পেয়ে যাবেন। আর বাড়িতেই যদি রূপচর্চার বাগান করে নেওয়া যায়, তা হলে প্রসাধনী সম্পর্কেও নিশ্চিন্ত থাকা যাবে। 

সিভয়েস/এএস

 

আরও পড়ুন

পৃথিবীর ভয়ংকর ৭ ভাইরাস

সেই আদিকাল থেকে মানুষের জীবনকে বিষিয়ে তুলছে যে ক্ষুদ্র দানব, তার নাম বিস্তারিত

সুস্থ থাকতে চাইলে 'বাঁশ খান'

বর্তমানে প্রচলিত জনপ্রিয় ধারার একটি শব্দ ‘বাঁশ’। একে অপরকে ক্ষতি করার বিস্তারিত

পেঁয়াজের বিকল্প হিসেবে যা ব্যবহার করবেন

রসনাবিলাসী বাঙালির রান্না ও রন্ধন প্রণালীতে পেঁয়াজ থাকবে না তা কি ভাবা যায়? বিস্তারিত

তীব্র গরমে সুস্থ থাকবেন যেভাবে

গরমে সারাদেশেই অতিষ্ঠ জনজীবন। বিশেষ করে ভোগান্তি বেড়েছে খেটে খাওয়া বিস্তারিত

ঈদ সামনে রেখে সক্রিয় চোর ও জালনোট কারবারি চক্র

ঈদকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে সক্রিয় হয়েছে সংঘবদ্ধ চোর ও জালনোট বিস্তারিত

স্বাস্থ্যকর ইফতারে যা খাবেন

আবার এসেছে পবিত্র রমজান মাস। ইফতারে আয়োজন করা হবে নানা মুখরোচক খাবার। তবে বিস্তারিত

মেদ কমানোর উপায়

মানব দেহে সব থেকে তাড়াতাড়ি মেদ জমে পেটে। পেটের বিভিন্ন অঙ্গের চারপাশে এই বিস্তারিত

অনিয়মে ওজন বেড়েছে? মেদ ঝরান এ ভাবে

খেতে কে না পছন্দ করে। খাবার দেখলে অনেকের হুশ থাকে না। আর তার খেসারত বিস্তারিত

পিসিআইইউতে 'একাডেমিক ফ্যাশন শো স্প্রিং-২০১৯'

আধুনিক বিশ্বে ফ্যাশন সচেতনতার কারণে বিশাল এক বাজার তৈরি হয়েছে। ফ্যাশন বিস্তারিত

সর্বশেষ

ওভারটেক করতে গিয়ে চন্দনাইশে মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চন্দনাইশে ওভারটেক করতে গিয়ে কাভার্ডভ্যানের বিস্তারিত

চলে গেলেন শ্রেষ্ঠ জেমস বন্ড

০০৭ জেমস বন্ড সিরিজের প্রথম সিনেমার জেমস বন্ড শন কনারি মারা গেছেন। গত ২৫ বিস্তারিত

১৭ দিনেও সরেনি বহদ্দারহাটে মসজিদের সামনে ময়লার ভাগাড়

নগরের বহদ্দারহাট বাস টার্মিনাল বায়তুশ শরফ জামে মসজিদের সামনে চসিকের বসানো বিস্তারিত

গোলাম সারোয়ারকে উদ্ধারে দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাংবাদিকদের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

চট্টগ্রামে নিখোঁজ সাংবাদিক গোলাম সারোয়ারকে উদ্ধারে প্রশাসনকে ২৪ ঘণ্টা বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি