Cvoice24.com

মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মোবাইল-মানিব্যাগ চুরির অভিযোগ

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:৫৮, ১৯ এপ্রিল ২০২১
মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মোবাইল-মানিব্যাগ চুরির অভিযোগ

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সেক্রেটারি মাওলানা মামুনুল হককে সোমবার (১৯ এপ্রিল) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ড পেয়েছে পুলিশ। মোহাম্মদপুর থানার যে মামলায় মামুনুলকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে সেখানে মোবাইল, টাকা চুরির নির্দেশদাতা ও ধর্মীয় উসকানির অভিযোগ আনা হয়েছে মামুনুলের বিরুদ্ধে।

রিমান্ড আবেদনে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, গত বছরের ৬ মার্চ মোহাম্মদপুর সাত মসজিদ এলাকায় সাত গম্বুজ মসজিদে রাত সাড়ে ৮টায় আসামি মাওলানা মামুনুল হক ও তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসার ছাত্র আসামি ওমর এবং ওসমান মামলার বাদী জি এম আলমগীর শাহীন ও তার সঙ্গে থাকা অন্যদের মসজিদে আমল (ধর্মীয় কাজ) করতে নিষেধ করেন। আসামিরা তাদেরকে মসজিদ থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। 

এতে বলা হয়, বাদী প্রতিবাদ করলে মামুনুল হক ও তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে আসামি ওমর, ওসমান এবং মাদরাসার আরও ৭০-৮০ জন ছাত্র বের হয়ে শাহীনকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর জখম করেন। লাঠির আঘাতে গুরুতর জখম হয়ে মসজিদের ভেতরে শুয়ে পড়েন শাহীন।

‌‘এরপর আসামিরা শাহীনের কাছে থাকা একটি স্যামসাং মোবাইল, নগদ সাত হাজার টাকা, ২০০ ডলার ও ব্র্যাক ব্যাংকের একটি ডেবিট কার্ডসহ বাদীর মানিব্যাগ নিয়ে যান। এছাড়াও পুনরায় মসজিদে প্রবেশ করলে শাহীনকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেন আসামিরা।’

তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, আসামি মামুনুল হক এ ঘটনায় জড়িত অন্য আসামিদের সম্পর্কে জানেন। জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে মামলার অপর আসামিদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ ও চোরাই মাল উদ্ধারের লক্ষ্যে উক্ত আসামিকে নিয়ে অভিযান পরিচালনা ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা আবশ্যক।

সেই আবেদনের উপর শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী মামুনুল হকের সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত বছর এই মামলা হয়েছিল মোহাম্মদপুর থানায়। মামলায় মামুনুল সাত নম্বর আসামি। মোহাম্মদপুরের স্থানীয় এক বাসিন্দা গত বছর ৭ মার্চ দণ্ডবিধির ১৪৩/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৭৯/৫০৬/২৯৬/১০৯ ধারায় বেআইনি জনতাবদ্ধভাবে মারধরসহ হত্যার হুমকি, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও চুরির অভিযোগ আনা হয়।

গতকাল রবিবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদরাসা থেকে মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নজরদারিতে ছিলেন।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়