Cvoice24.com

নারায়ণগঞ্জ সিটির ভোট গ্রহণ চলছে

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৩৬, ১৬ জানুয়ারি ২০২২
নারায়ণগঞ্জ সিটির ভোট গ্রহণ চলছে

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) নাসিকের ২৭টি ওয়ার্ডের ১৯২টি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ একটানা চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সবগুলো কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হবে।

শীত আর কুয়াশা উপেক্ষা করেই সকালে ভোটাররা দলে দলে কেন্দ্রগুলোতে ভিড় করছেন। ভোটকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা গেছে।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। র‍্যাব, পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি সদস্যরা শহরজুড়ে নিয়মিত টহল দিচ্ছেন। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পর্যাপ্ত সংখ্যক সদস্য মোতায়েন রয়েছে। ‌অন্যদিকে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নাসিক নির্বাচন এলাকা নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মোতায়েন রয়েছেন।

এ বিষয়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় মোতায়েন রয়েছেন। নির্বাচনের পরিবেশকে উৎসবমুখর রাখতে যা যা করণীয় তারা তাই করছেন। তবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ করার চেষ্টা করলে বা নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করলে কঠোর হাতে দমন করা হবে বলেও তারা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।
 
নির্বাচনে মেয়র পদে নাম আছে সাত প্রার্থীর। কিন্তু সব আলোচনা সীমাবদ্ধ দুই প্রার্থীর মধ্যে। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার।

শনিবার ইসির জনসংযোগ পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) এসএম আসাদুজ্জামান জানান, ১৯২টি কেন্দ্রে ১ হাজার ৩৩৩ ভোটকক্ষ থাকবে। মোট ইভিএম ২ হাজার ৯১২ ইউনিট। স্মার্টবুথ রয়েছে ২টি কেন্দ্র। মডার্ন গার্লস স্কুল (১২৩ ও ১২১ কেন্দ্র), ওয়ার্ড নম্বর- ৬। ১৯২টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩০টি কেন্দ্রকে ‘অতি গুরুত্বপূর্ণ’ বা ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেগুলোতে বাড়তি সতর্কতা নেওয়া হয়েছে।

ভোটকক্ষে ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৪৬ জন, নারী ভোটার ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১১ জন ও হিজড়া ভোটার ৪ জন। ভোটের মাঠে মেয়র পদে সাতজন, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ৩৪ জন ও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ১৪৫ জনসহ মোট ১৮৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি ভোটে মেয়র পদে সাতজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- খেলাফত মজলিসের এবিএম সিরাজুল মামুন (দেয়াল ঘড়ি), স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কামরুল ইসলাম (ঘোড়া), স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বহিষ্কৃত বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকার (হাতি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা মো. মাছুম বিল্লাহ (হাতপাখা), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সেলিনা হায়াৎ আইভী (নৌকা), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন (বটগাছ) ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস (হাত ঘড়ি)।

একই সঙ্গে ৯টি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৩৪ জন এবং ২৭টি সাধারণ সদস্য পদে ১৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

২০১১ সালে নির্দলীয় ভোটে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ও দেশের প্রথম নারী মেয়র হয়েছিলেন সেলিনা হায়াৎ আইভি। এরপর ২০১৬ সালে দলীয় প্রতীকে আওয়ামী লীগের নৌকা নিয়ে দ্বিতীয়বার মেয়র হন আইভী।


 

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়