Cvoice24.com

‘বিজ্ঞান বক্তৃতা আগামী দিনের বিজ্ঞানী তৈরিতে ভূমিকা রাখবে’

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:১৫, ১২ নভেম্বর ২০২১
‘বিজ্ঞান বক্তৃতা আগামী দিনের বিজ্ঞানী তৈরিতে ভূমিকা রাখবে’

দৃষ্টি চট্টগ্রামের আয়োজনে ‘নোবেল বিজ্ঞান বক্তৃতা’ অনুষ্ঠান।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ বলেছেন, নোবেল পুরস্কার শুধু আবিস্কারের জন্য দেওয়া হয় না; দেখা হয় তা মানব কল্যাণে কতটুকু কাজে লাগছে। এ ধরনের বিজ্ঞান বক্তৃতা আগামী দিনের বিজ্ঞানী তৈরিতে ভূমিকা রাখবে। দেশের সমস্যা সমাধান বের করতে বিজ্ঞান গবেষণা খুবই দরকার এবং চট্টগ্রামে এ ধরনের কাজ বেশি হওয়া উচিত।

শুক্রবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে জেলা শিল্পকলা একাডেমি সেমিনার হলে চিকিৎসা ও দেহতত্ত্বে নোবেল পুরস্কার ২০২১ উদযাপন উপলক্ষে দৃষ্টি চট্টগ্রামের আয়োজনে ‘নোবেল বিজ্ঞান বক্তৃতা’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রামে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত ‘নোবেল বিজ্ঞান বক্তৃতা’ অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় ছিলো এলবিয়ান গ্রুপ ও আমেরিকান কর্নার চট্টগ্রাম। সহযোগিতায় ছিলো ডিজিজ বায়োলজি এন্ড মলিকুলার এপিডেমিওলজি রিসার্চ গ্রুপ, চিটাগাং ইউনিভার্সিটি রিসার্চ এন্ড হায়ার স্টাডি সোসাইটি, নেটওয়ার্ক অফ ইয়ং বায়োটেকনোলজিস্ট অব বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও ইউএসটিসি চ্যাপ্টার, ইউএসটিসি ফার্মা ডিবেটিং ক্লাব এবং হোয়াইট বোর্ড সাইন্স ক্লাব।

অনুষ্ঠানে রোগের চিকিৎসায় এই আবিষ্কারের গুরুত্ব তুলে ধরেন প্যানেল আলোচক ডা. ফারহানা আকতার। তিনি আশা প্রকাশ করেন ডায়াবেটিসসহ অন্যান্য অসুখে ডেভিড জুলিয়াস ও আরডেম পাটাপুটিয়ান এর আবিষ্কার নতুন চিকিৎসার সুযোগ সৃষ্টি করবে।

চট্টগাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. দ্বৈপায়ন শিকদার নোবেল পুরস্কারের আবিষ্কার থেকে পরবর্তীতে আরো কীভাবে নতুন নতুন আবিষ্কারের দ্বার উন্মোচন করা যায় সে বিষয়ে আলোকপাত করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের শিক্ষক ও গবেষক ড. মুশতাক ইবনে আয়ুব মূল বক্তার বক্তৃতায় উপর্যুক্ত বিষয়ে ২০২১ সালে নোবেল বিজয়ী ডেভিড জুলিয়াস ও আরডেম পাটাপুটিয়ান কর্তৃক আবিষ্কৃত যথাক্রমে তাপমাত্রা সংবেদনের রিসেপ্টর ও সংস্পর্শ সংবেদনের রিসেপ্টর আবিষ্কারের গল্প তুলে ধরেন। দৈনন্দিন জীবনের খুব সাধারণ পর্যবেক্ষণ থেকে কীভাবে গভীর তাৎপর্যপূর্ণ ও যুগান্তকারী আবিষ্কার করা যায় তা উঠে আসে ড. মুশতাক ইবনে আয়ূব এর বক্তৃতায়।

এছাড়া অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ পরিচালক ডা বিদ্যুৎ বড়ুয়া। দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুলের সভাপতিত্বে সমাপনি অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের যুগ্ম সম্পাদক সাইফুদ্দিন মুন্না। পুরো আয়োজনটি সঞ্চালনা করেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আদনান মান্নান।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়