Cvoice24.com

গাছের পাতা পড়ায় স্টেশন মাস্টার বহিষ্কার

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:৫৫, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১
গাছের পাতা পড়ায় স্টেশন মাস্টার বহিষ্কার

ছবি: সংগৃহীত।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন হলো ফৌজদারহাট স্টেশন। সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) এ স্টেশনে পড়েছিল গাছের পাতা। এতেই ক্ষুদ্ধ হয়ে তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে নিজস্ব ক্ষমতাবলে স্টেশন মাস্টার রতন কান্তি দাশকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে । সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মো. জাহাঙ্গীর আলম ফৌজদারহাট স্টেশনে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, ওই স্টেশন পরিষ্কারের কাজে  নিয়োজিত আছেন ঠিকাদারী ভিত্তিতে নিয়োগ পাওয়া পেয়ারা বেগম নামে মাত্র একজন  পরিচ্ছন্ন কর্মী। সোমবার তিনি যথাসময়ে স্টেশন পরিষ্কারের কাজে আসেননি। এরমধ্যেই হঠাৎ স্টেশন পরিদর্শনে যান জিএম মো. জাহাঙ্গীর আলম। স্টেশন অপরিচ্ছন্ন দেখে ক্ষুদ্ধ হয়ে তাৎক্ষণিক বহিস্কার করেন স্টেশন মাস্টার রতন কুমার দাশকে। 

সাময়িক বহিষ্কার পাওয়া স্টেশন মাস্টার রতন কুমার দাশ সিভয়েসকে বলেন, ‘জিএম স্যার আজকে এসেছিলেন। এসময় স্টেশনে গাছের পাতা পড়েছিল। তখন স্যার (জিএম) জানতে চাইলেন স্টেশনে পরিষ্কার করা হয়নি কেন। আমি বলেছি পরিচ্ছন্ন কর্মী আসতে দেরি হচ্ছে। তারপর তিনি চলে গেলেন।’ 

বহিষ্কারের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।’ পরিচ্ছন্ন কর্মী পেয়ারা অনুপস্থিতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘উনি দেরিতে এসেছেন। দুপুর ১টার দিকে।’ নিজেকে নির্দোষ দাবি করে তিনি বলেন ‘আমাকে জিএম স্যার প্রশ্ন করেছেন- স্টেশনে পড়ে থাকা পাতা কতদিন আগের। আমি বলেছি প্রতিদিন পরিষ্কার করা হয়। আজকেই পরিচ্ছন্ন কর্মী আসতে দেরি করেছে। এরপর উনি স্টোররুমটি ঘুরে দেখে আর কিছু বলেননি।’ 

সিভয়েসকে তিনি বলেন, ‘আমি মিথ্যা বলিনি। শীতের শেষের দিকে গাছের পাতা বেশি ঝরেছে। প্রতিদিন সকালে এগুলো পরিষ্কার করা হয়। এখানে আমার দোষটা কোথায়?’

এদিকে ‘তুচ্ছ’ ঘটনাকে কেন্দ্র বাহিষ্কারের মত কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন রেলওয়ের কয়েকজন দায়িত্বশীল কয়েকজন কর্মকর্তা। তারা বলছেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমন শাস্তি কাম্য নয়। তবে স্টেশনের মাস্টারদের মধ্যে শৃঙ্খলা ফেরাতে এমন সিদ্ধান্তকে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন।

হঠাৎ স্টেশন মাস্টারকে বহিষ্কারের কারণ জানতে চেয়ে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও ফোন রিসিভ করেন নি জিএম মো. জাহাঙ্গীর আলম। এতে তার বক্তব্য জানা যায়নি।

অন্যদিকে বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) স্নেহাশীষ দাশ গুপ্ত জানান, স্টেশন অপরিষ্কার রাখায় জিএম স্যার ওই স্টেশন মাস্টারের বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নিয়েছেন। 
 

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়