Cvoice24.com

রেলের ‘স্পর্শকাতর’ উচ্ছেদের তালিকায় খোদ রেল কর্তার অবৈধ স্থাপনা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:৪৯, ১৬ আগস্ট ২০২২
রেলের ‘স্পর্শকাতর’ উচ্ছেদের তালিকায় খোদ রেল কর্তার অবৈধ স্থাপনা

চট্টগ্রাম নগরের আইস ফ্যাক্টরি রোডের রেলওয়ে কলোনিতে গত ৩ আগস্ট রেলওয়ের হিসাব রক্ষক মো. শাহাদাত হোসেনের (রুমেল) বিরুদ্ধে বেশ কিছু অবৈধ দোকান পাট ও বাসা বাড়ি গড়ে তুলে তা ভাড়া দিয়ে ফায়দা লুটার অভিযোগ দেয় দুদক। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে রেলের ওই হিসাব কর্তার ‘নিয়ন্ত্রাধীন’ দোকানপাট ও বসতবাড়ি গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে রেলের তালিকাভুক্ত ৬৪ দখলদারের দখলে থাকা প্রায় ১৮৭টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  মাহবুব উল করিম অভিযান চালিয়ে এসব স্থাপনা উচ্ছেদ করেন। এ সময় স্থানীয় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ ও  রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর (আরএনবি) সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  মাহবুব উল করিম বলেন, দুদকের শুনানির প্রেক্ষিতে আইস ফ্যাক্টরি রোডে উচ্ছেদ কার্যক্রম চালানো হয়েছে। এসময় অভিযুক্ত স্থাপনাগুলো ছাড়াও অন্যান্য অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে প্রায় শূন্য দশমিক ২৪ একর রেলভূমি উদ্ধার হয়েছে। 

রেলওয়ে কর্মকর্তারা জানান, গত ৩ আগস্ট দুদকের শুনানিতে নগরের আইস ফ্যাক্টরি রোডের রেলওয়ে কলোনীতে বাসা নম্বর টি/৭৫ সংলগ্ন এলাকায় বেশ কিছু অবৈধ দোকান পাট ও বাসা বাড়ি গড়ে তোলার অভিযোগ আসে। ওই সব এলাকা ভাড়া দিয়ে ফায়দা লুটছেন রেলওয়ের হিসাব রক্ষক (পাহাড়তলী/সংস্থাপন) মো. শাহাদাত হোসেন (রুমেল)। অভিযোগ পেয়ে আইস ফ্যাক্টরি রোডে অভিযানে নামে রেলওয়ের ভূ-সম্পত্তি বিভাগ। দিনভর অভিযানে ওই এলাকার প্রায় ১৬৮টির বেশি কাঁচা ও সেমিপাকা ঘর উচ্ছেদ করা হয়।

সিভয়েস/আরকে

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়