Cvoice24.com
corona-awareness

টোকিও অলিম্পিক : ব্রাজিলের জয়ের দিনে আর্জেন্টিনার হার

সিভেয়স ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:০২, ২২ জুলাই ২০২১
টোকিও অলিম্পিক : ব্রাজিলের জয়ের দিনে আর্জেন্টিনার হার

টোকিও অলিম্পিকে ব্রাজিলের শুরুটা দুর্দান্ত হলেও আর্জেন্টিনার হলো না। গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের ফুটবল ইভেন্টের প্রথম ম্যাচেই হেরে গেছে লিওনেল মেসির দেশ। স্বর্ণের প্রত্যাশা আর্জেন্টিনার অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দল বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সাড়ে ৪টার দিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলতে নেমে ২-০ গোলে হেরেছে। 

অন্যদিকে জার্মানির জালে এক হালি গোল দিয়েছে সেলেসাওরা। বিপরীতে জার্মানিও করেছে দুইটি গোল।

বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার বিকালে টোকিওতে প্রায় এক সময়ে ম্যাচ দুটি হয়। 

ব্রাজিলের বড় জয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন তারকা ফরোয়ার্ড রিচার্লিসন। অন্য গোলে নাম তুলেছেন পাওলিনহো। জার্মানির পক্ষে গোল দুইটি করেছেন নাদিয়েম আমিরি ও রাগনার অ্যাক।

ম্যাচে লিড পেতে একদমই সময় লাগেনি ব্রাজিলের। মাত্র ৭ মিনিটের সময়ই প্রথম গোলটি করেন রিচার্লিসন। অ্যান্টনির থ্রু বল ধরে ডি-বক্সের ডান পাশ থেকে ডান পায়ের শটে জালের ডান দিকে দিয়ে বল জালে জড়ান জাতীয় দলের এ ফরোয়ার্ড।

শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার পর আক্রমণের ধার আরও বাড়িয়ে দেয় ব্রাজিল। যার সুফল মেলে ১৫ মিনিট পরই। এবার গুইলেরমের ক্রসে জালের খুব কাছ থেকে দুর্দান্ত হেডে গোল করেন রিচার্লিসন।

হ্যাটট্রিক পূরণ করতে বেশিক্ষণ সময় নেননি ২৪ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। ম্যাচের ৩০ মিনিটের সময় ম্যাথিউজ কুনহার পাস ধরে ডি-বক্সের মাঝ থেকে ডান পায়ের শটে ম্যাচে নিজের তৃতীয় গোলটি করেন তিনি। ব্রাজিল এগিয়ে যায় ৩-০ গোলে।

প্রথমার্ধে বাকি সময়ে আর গোলের দেখা পায়নি দুই দলের কেউই। তবে অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে হালিপূরণের সুযোগ পেয়েছিল ব্রাজিল। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেননি ম্যাথিউজ কুনহা।

দানি আলভেসের ক্রসে হেড করেছিলেন কুনহা। সেটি ডি-বক্সের মধ্যে বেনজামিন হেনরিকসের হাতে লাগে। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। পেনাল্টি নেন কুনহা। তবে সেটি ঠেকিয়ে দেন জার্মানির গোলরক্ষক ফ্লোরিয়ান মুলার।

ফলে তিন গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যেতে হয়েছে ব্রাজিলকে। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ঘুরে দাঁড়ায় জার্মানি। ম্যাচের ৫৭ মিনিটের সময় ডি-বক্সের বাইরে থেকে ডানপায়ের জোরালো শটে এক গোল শোধ করেন নাদিয়েম আমিরি।

এরপর আরও গোলের খোঁজে মরিয়া হয়ে পড়ে জার্মানরা। কিন্তু ম্যাচের শেষ দশ মিনিটের আগে জালের ঠিকানা পায়নি তারা। খেলার ৮৪ মিনিটে গিয়ে ডেভিড রাউমের ক্রস থেকে দারুণ হেডারে ব্যবধান আরও কমান রাগনার অ্যাক।

মনে হচ্ছিল শেষদিকে আরেক গোল দিয়ে হয়তো সমতা ফেরাতে পারবেন কুন্তজের দল। উল্টো অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে গোল হজম করে তারা। ব্রুনো গুইলেরমের এগিয়ে দেয়া বল ধরে হালিপূরণ করেন পাওলিনহো।

ব্রাজিল এবং জার্মানি খেলছে ‘ডি’ গ্রুপে। এই গ্রুপের অন্য দুই দল হচ্ছে আইভরি কোস্ট এবং সৌদি আরব।

অস্ট্রেলিয়া ২, আর্জেন্টিনা

অন্যদিকে এর কিছুক্ষণ আগে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ১৪ মিনিটের সময় অস্ট্রেলিয়ার হয়ে প্রথম গোল করেন লাচলান ওয়েলস। মিচেল ডিউকের এসিস্ট থেকে ডি-বক্সের বাম পাশ থেকে বাম পায়ের শটে ডান দিক দিয়ে বল জালে জড়ান ওয়েলস।

প্রথমার্ধে যথাসাধ্য চেষ্টা করেও তা শোধ করতে পারেনি আর্জেন্টিনা। উল্টো অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে দ্বিতীয়বারের মতো হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আর্জেন্টিনার ফ্রান্সিসকো ওরতেগাকে।

ফলে দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা সময় ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। যে কারণে গোল শোধ করবে কি বারে বারেই আরো গোল হজমের শঙ্কায় থেকেছে আকাশি-সাদার দল।

এর পরও অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণে বেশ কয়েকবার হানা দিয়েছে আর্জেন্টিনা। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। ৮০ মিনিটের সময় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মারকো তিলিও। ২-০ তে এগিয়ে যা অসিরা।

ডিউকের পাস থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেয়া বাম পায়ের শটে আর্জেন্টিনার পরাজয় নিশ্চিত করেন মারকো তিলিও।

নির্ধারিত সময় শেষে রেফারির শেষ বাঁশি ২-০ গোলের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে নেহুয়েন পেরেজের দল। আর্জেন্টিনার পরের ম্যাচে প্রতিপক্ষ স্পেন। এরপর খেলবে মিসরের বিপক্ষে।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়