Cvoice24.com

বিপিএল/ কম খরচে দল সাজালো আফিফের চট্টগ্রাম, বেশি দামে সাকিবের বরিশাল

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০:০২, ২৩ নভেম্বর ২০২২
কম খরচে দল সাজালো আফিফের চট্টগ্রাম, বেশি দামে সাকিবের বরিশাল

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নবম আসর।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) নবম আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট পর্ব শেষ হয়েছে। এর আগেই সরাসরি চুক্তিতে ছিলেন কয়েকজন ক্রিকেটার। বুধবার (২৩ নভেম্বর) রাজধানীর একটি অভিজাত পাঁচতারকা হোটেলে ড্রাফট থেকে বাকি ক্রিকেটারদের নিয়ে স্কোয়াড গুছিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। যেখানে দল সাজাতে সবচেয়ে বেশি টাকা খরচ করেছে সাকিব আল হাসানের দল ফরচুন বরিশাল। আর সবচেয়ে কম খরচ করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

দলগুলোর মধ্যে ক্রিকেটারদের পেছনে বরিশাল ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকা, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৪ কোটি ১৫ লাখ, খুলনা টাইগার্স ৩ কোটি ৮০ লাখ, সিলেট স্ট্রাইকার্স ৩ কোটি ৭০ লাখ, রংপুর রাইডার্স ৩ কোটি ১৫ লাখ ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ২ কোটি ৭৫ লাখ টাকা খরচ করেছে।

বিপিএলের নবম আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফটে ন্যুনতম ১০ জন করে দেশি খেলোয়াড় নিয়েছে প্রতিটি দল। বিদেশি খেলোয়াড় নেওয়ার ক্ষেত্রে কোন সীমাবদ্ধতা রাখা হয়নি এবার।

ড্রাফটের পর সর্বোচ্চ ২৪ জন খেলোয়াড়কে দলে নিয়েছে ফরচুন বরিশাল। তারা ১২ জন করে দেশি ও বিদেশি খেলোয়াড় দলভুক্ত করেছে। সর্বনিম্ন ১৬ জন খেলোয়াড় রয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স স্কোয়াডে। দেশি ১১ জনের সঙ্গে স্রেফ ৫ জন বিদেশি নিয়েছে তারা। এছাড়া খুলনা টাইগার্স দলে রয়েছে ১১ দেশির সঙ্গে রয়েছেন ৬ বিদেশি খেলোয়াড়।

প্রথম সেটের প্রথম ডাকেই লিটনকে দলে নিয়েছে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। টুর্নামেন্টের গত আসরেও কুমিল্লার হয়ে খেলেছেন ২৮ বছর বয়সী এই তারকা। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো কুমিল্লার হয়ে খেলবেন তিনি। 

প্লেয়ার্স ড্রাফটের প্রথম সেটে দল পেয়েছেন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম। সিলেট স্ট্রাইকার্স বেছে নিয়েছে মুশফিককে। মাহমুদউল্লাহকে নিয়েছে ফরচুন বরিশাল। এছাড়া প্রথম সেটের প্রথম ডাকে মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীকে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স, মোহাম্মদ মিঠুনকে ঢাকা ডমিনেটরস, শেখ মেহেদি হাসানকে রংপুর রাইডার্স ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনকে নিয়েছে খুলনা টাইগার্স।

প্রথম সেটের দ্বিতীয় ডাকে দল পাওয়া সাতজন হলেন নাজমুল হোসেন শান্ত (সিলেট), হাসান মাহমুদ (রংপুর), ইয়াসির আলি চৌধুরী (খুলনা), মেহেদী হাসান মিরাজ (বরিশাল), শুভাগত হোম (চট্টগ্রাম), সৌম্য সরকার (ঢাকা) ও মোসাদ্দেক হোসেন (কুমিল্লা)।

বিদেশিদের মধ্যে ড্রাফট থেকে উন্মুক্ত চাঁদকে দলে টেনেছে চট্টগ্রাম। ভারতীয় ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া এই ব্যাটসম্যান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও খেলেছেন। রংপুর নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ২৮ বছর বয়সী লেগ স্পিনার অ্যারন জোনসকে। বিপিএল ইতিহাসের দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ডধারী আহমেদ শেহজাদ খেলবেন ঢাকা ডমিনেটরসের হয়ে। 

মুমিনুল ছাড়াও দল পাননি সুমন খান, সোহাগ গাজী, মোহাম্মদ আশরাফুল, আরাফাত সানি, জুনায়েদ সিদ্দিক।

প্লেয়ার্স ড্রাফটের পর বিপিএলের সাত দলের অবস্থা—

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

সরাসরি চুক্তি: মোস্তাফিজুর রহমান, শাহিন শাহ আফ্রিদি (পাকিস্তান), মোহাম্মদ রিজওয়ান (পাকিস্তান), হাসান আলি (পাকিস্তান), খুশদিল শাহ (পাকিস্তান), মোহাম্মদ নবি (আফগানিস্তান), আবরার আহমেদ (পাকিস্তান), জশ কেবি (ইংল্যান্ড), ব্র্যান্ডন কিং (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

ড্রাফট- লিটন দাস, মোসাদ্দেক হোসেন, তানভির ইসলাম, ইমরুল কায়েস, আশিকুর জামান, জাকের আলি, শন উইলিয়ামস (জিম্বাবুয়ে), চ্যাডউইক ওয়াল্টন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), সৈকত আলি, আবু হায়দার রনি, নাঈম হাসান, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন।

ঢাকা ডমিনেটরস

সরাসরি চুক্তি: তাসকিন আহমেদ, চামিকা করুনারাত্নে (শ্রীলঙ্কা), দিলশান মুনাবিরা (শ্রীলঙ্কা)।

ড্রাফট- মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার, শরিফুল ইসলাম, আরাফাত সানি, নাসির হোসেন, আল আমিন হোসেন, শান মাসুদ (পাকিস্তান), আহমেদ শেহজাদ (পাকিস্তান), অলক কাপালী, মনির হোসেন খান, আরিফুল হক, মুক্তার আলি, মিজানুর রহমান  উসমান ঘানি (আফগানিস্তান), সালমান ইরশাদ (পাকিস্তান), দেলোয়ার হোসেন।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স 

সরাসরি চুক্তি: আফিফ হোসেন, বিশ্ব ফার্নান্দো (শ্রীলঙ্কা), কার্টিস ক্যাম্পার (আয়ারল্যান্ড), আশান প্রিয়াঞ্জন (শ্রীলঙ্কা)।

ড্রাফট- মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, শুভাগত হোম, মেহেদি হাসান রানা, ইরফান শুক্কুর, মেহেদি হাসান মারুফ, জিয়াউর রহমান, ম্যাক্স ও’ডাউড (নেদারল্যান্ডস), উন্মুখত চাঁদ (যুক্তরাষ্ট্র), তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ, ফরহাদ রেজা, তৌফিক খান তুষার।

ফরচুন বরিশাল 

সরাসরি চুক্তি: সাকিব আল হাসান, রাকিম কর্নওয়াল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মোহাম্মদ ওয়াসিম (পাকিস্তান), ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), ইব্রাহিম জাদরান (আফগানিস্তান), ইফতিখার আহমেদ (পাকিস্তান), নবিন উল হক (আফগানিস্তান), উসমান কাদির (পাকিস্তান), কুশল পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), রহমানউল্লাহ গুরবাজ (আফগানিস্তান), করিম জানাত (আফগানিস্তান)।

ড্রাফট- মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, ইবাদত হোসেন, এনামুল হক বিজয়, কামরুল ইসলাম রাব্বি, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, হায়দার আলি (পাকিস্তান), চতুরাঙ্গা ডি সিলভা (শ্রীলঙ্কা), সৈয়দ খালেদ আহমেদ, সাইফ হাসান, কাজী অনিক, সানজামুল ইসলাম, সালমান হোসেন ইমন।

খুলনা টাইগার্স

সরাসরি চুক্তি: তামিম ইকবাল, আজম খান (পাকিস্তান), ওয়াহাব রিয়াজ (পাকিস্তান), আভিশকা ফার্নান্দো (শ্রীলঙ্কা), নাসিম শাহ (পাকিস্তান)।

ড্রাফট- মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, ইয়াসির আলি চৌধুরী, নাসুম আহমেদ, নাহিদুল ইসলাম, মুনিম শাহরিয়ার, সাব্বির রহমান, দাসুন শানাকা (শ্রীলঙ্কা), পল ফন মেকেরিন (নেদারল্যান্ডস), শফিকুল ইসলাম, প্রীতম কুমার, হাবিবুর রহমান সোহান, মাহমুদুল হাসান জয়।

রংপুর রাইডার্স

সরাসরি চুক্তি: নুরুল হাসান, সিকান্দার রাজা (জিম্বাবুয়ে), হারিস রউফ (পাকিস্তান), মোহাম্মদ নাওয়াজ (পাকিস্তান), শোয়েব মালিক (পাকিস্তান), পাথুম নিশাঙ্কা (শ্রীলঙ্কা), জেফ্রি ভ্যান্ডারসাই (শ্রীলঙ্কা)।

ড্রাফট- শেখ মেহেদি হাসান, হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, রকিবুল হাসান, শামীম হোসেন, রিপন মণ্ডল, আজমতউল্লাহ ওমরজাই (আফগানিস্তান), অ্যারন জোনস (যুক্তরাষ্ট্র), রনি তালুকদার, পারভেজ হোসেন ইমন, রবিউল হক, আলাউদ্দিন বাবু।

সিলেট স্ট্রাইকার্স

সরাসরি চুক্তি: মাশরাফি বিন মুর্তজা, মোহাম্মদ আমির (পাকিস্তান), মোহাম্মদ হারিস (পাকিস্তান), থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা (শ্রীলঙ্কা), রায়ান বার্ল (জিম্বাবুয়ে), কামিন্দু মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা), কলিন অ্যাকারম্যান (নেদারল্যান্ডস)।

ড্রাফট- মুশফিকুর রহিম, নাজমুল হোসেন শান্ত, রেজাউর রহমান রাজা, নাবিল সামাদ, তৌহিদ হৃদয়, রুবেল হোসেন, টম মুরস (ইংল্যান্ড), গুলবাদিন নাইব (আফগানিস্তান), জাকির হাসান, নাজমুল ইসলাম অপু, আকবর আলি, মোহাম্মদ শরিফউল্লাহ, তানজিম হাসান সাকিব।

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়