Cvoice24.com

নির্ধারিত সময়েই ম্যাচ শেষ করতে চায় আর্জেন্টিনা

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:১৪, ৯ ডিসেম্বর ২০২২
নির্ধারিত সময়েই ম্যাচ শেষ করতে চায় আর্জেন্টিনা

কাতার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে আজ মুখোমুখি হচ্ছে নেদারল্যান্ডস ও হট ফেভারিট আর্জেন্টিনা। শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় শুক্রবার দিবাগত রাত ১টায় লুসাইল স্টেডিয়ামে ডাচদের মুখোমুখি হবে মেসিরা।

সর্বশেষ বার ফাইনালে ওঠার সময় আর্জেন্টিনা জিতেছিল টাইব্রেকারে। ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে গোলশূন্য সমতার পর পেনাল্টি শুট আউটে ৪-২ ব্যবধানে জিতেছিলেন লিওনেল মেসিরা। এবার আবারও সামনে নেদারল্যান্ডস, মঞ্চও নকআউটের।

তবে আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি টাইব্রেকারে গড়ানোর আগেই খেলা শেষ করতে চান। তারপরও সতর্কতার অংশ হিসেবে রোজ শিষ্যদের দিয়ে পেনাল্টি অনুশীলন করাচ্ছেন তিনি।

ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনিকে তার দলের পেনাল্টি প্রস্তুতি নিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, সব সময়ই অনুশীলনে পেনাল্টির প্রস্তুতি নেওয়া হয়। কিন্তু ম্যাচের দিন কিক নেওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। আশা করি, আমাদের যেন টাইব্রেকার পর্যন্ত যেন যেতে না হয়। এর আগেই যেন শেষ করতে পারি।

এদিকে লিওনেল মেসিকে নিয়ে শুরু হয়েছে প্রতিপক্ষের চুলছেড়া বিশ্লেষণ। কারণ মেসির প্রায় সব কৌশলই সবার জানা। ম্যাচের ঠিক কোন সময়টাতে কী ধরনের কৌণিক শটে বল জালে জড়াতে পারেন তিনি, প্রতিপক্ষের গোলরক্ষক বেশ ভালোভাবেই জানেন। ডিফেন্ডাররা জানে, ঠিক কী কৌশলে মেসি বল নিয়ে ছুটে যাবেন গোলমুখে। কী ধরনের শটে গোল করতে পারেন মেসি, তাও জানে তারা। এই টেকনোলজির যুগে কোনো কিছু কী আর লুকিয়ে থাকে! কম্পিউটারের মাধ্যমে চলে বিশ্লেষণ। খুঁটিনাটি বের করা হয় ফুটবলারের। তাকে আটকানোর কৌশল আঁটেন কোচ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সফল হয় প্রতিপক্ষ। কিন্তু লিওনেল মেসির ক্ষেত্রে যেন কিচ্ছুটি করার নেই! তার সব কিছু জানার পরও অসহায় হয়ে পড়ে প্রতিপক্ষ। মেসি ঠিকই নিজের কাজটা করে দেন অবলীলায়! বাম পায়ের জাদুতে। যে জাদুতে মুগ্ধ হয়ে যায় পুরো ফুটবল দুনিয়া। আজও নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে মেসির বাম পায়ের জাদু দেখার অপেক্ষায় থাকবেন আর্জেন্টাইন সমর্থকরা।

মেসির জাদুর খবর বের করা প্রায় অসম্ভব। প্রতিপক্ষ হয়তো ভাবল, মেসি এবার ডান দিকে যাবেন। মেসির অতীত মুভমেন্ট বিশ্লেষণ করে কোচ তাই বলে দিয়েছেন! কিন্তু মেসি ঠিক উল্টোটা করলেন। বাম দিকে গেলেন। প্রতিপক্ষ হয়তো ভাবল, এবার মেসি বাতাসে বল উড়িয়ে গোল করবেন। মেসি মাটি কামড়ানো শটে গোল করলেন। ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ মেসিকে রুখবে, সাধ্য কার! সাধ্য নেই জেনেও, সবাই চেষ্টা করে। 

লিওনেল মেসিকে রুখে দেওয়ার কৌশল খুঁজছেন ডাচ ডিফেন্ডার ফন ডাইকও। ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলে খেলা এই ডিফেন্ডার বর্তমানে বিশ্বসেরাদের মধ্যে অন্যতম। তার সামনে আটকে যাচ্ছেন সেরা সেরা ফরোয়ার্ডও। কিন্তু মেসিকে নিয়ে দুশ্চিন্তার শেষ নেই এই তারকা ডিফেন্ডারের। 

তিনি বলেছেন, ‘সবচেয়ে কঠিন দিকটা হলো, আমরা যখন আক্রমণে উঠে কঠোর পরিশ্রম করি, তখন মেসি এক কোণে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে খেলাটা উপভোগ করে। এমন মেসিকে আটকানোর জন্য খুবই উন্নতি মস্তিষ্কের প্রয়োজন।’ 

খেলার মাঝে প্রায়ই মেসি হেলে দুলে হেঁটে বেড়ান। কোথাও কোথাও দাঁড়িয়েও থাকেন। এতে মেসি নিজেকে নতুন আক্রমণের জন্য প্রস্তুত করে নিতে পারেন। পূর্ণোদ্যমে শুরু করতে পারেন ম্যাচের মাঝপথেও। তবে মেসির এই দিকটার দুর্বলতাও খুঁজে পেয়েছেন ডাচ কোচ লুই ফন গাল। তিনি বলেছেন, ‘মেসি অনেক বিপজ্জনক ফুটবলার। এতে সন্দেহ নেই। তবে আমাদের জন্য একটা সুযোগও আছে। আর্জেন্টিনা বলের দখল হারালে সেই বল পেতে মেসি কোনো চেষ্টা করে না।’ 

ফন গাল কী তবে মেসির সাপ্লাই লাইন কেটে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন! হবে হয়তো। এই পরিকল্পনার খবর নিশ্চয়ই অজানা নেই লিওনেল স্কালোনি আর লিওনেল মেসিরও!

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়