Cvoice24.com

কীটনাশক দিতেই পানের বরজ পচে নষ্ট মহেশখালীতে

কক্সবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:১৯, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩
কীটনাশক দিতেই পানের বরজ পচে নষ্ট মহেশখালীতে

পানপাতার যত্ন নিচ্ছেন পানচাষী নুরুল ইসলাম

কীটনাশক প্রয়োগ করতেই পচে নষ্ট হল ঋণের টাকায় তৈরি নুরুল ইসলামের পানের বরজ। পানচাষী নুরুল ইসলাম অভিযোগ করেছেন কৃষি অফিসের শিখিয়ে দেওয়া কীটনাশক ব্যবহারের কারণেই ঋণের টাকায় তৈরি পুরো বরজই নষ্ট হয়ে গেছে।

নুরুল ইসলামের বাড়ি কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের আকবর হাজ্বী পাড়া গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত আকবর আহমদের ছেলে।

নুরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিবারের মত ১৫ শতক জমিতে ৩ লাখ টাকা খরচ করে পান বরজ তৈরি করেছেন।  এজন্য এনজিও থেকে ঋণ নিয়েছেন দেড় লাখ টাকা।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত ৩-৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত ইউনিসেফের উদ্যোগে তিনদিনের প্রশিক্ষণের আয়োজন করে মহেশখালী উপজেলা কৃষি অফিস। সেখানে কৃষকদের কীটনাশক তৈরির পদ্ধতি শেখানো হয়। শিখিয়ে দেওয়া সেই পদ্ধতি অনুসরণ করে ৮ ডিসেম্বর পান বরজে কীটনাশক প্রয়োগ করেন তিনি। কিন্তু পরেরদিন বরজের সকল পানই পচে যায়।’

এলাকার পানচাষী মনিরুল ইসলাম ও জসিম উদ্দীন বলেন, কীটনাশক প্রয়োগের আগে পান বরজ দেখতে অনেক সুন্দর ছিল। প্রতিটি পান ছিল সতেজ। এখন পান বরজের পুরো অংশ পচে গলে যাচ্ছে।

পানচাষী নুরুল ইসলামের অভিযোগের বিষয়টি জানানো হলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাছিরুল ইসলাম বলেন, পান বরজটি পরিদর্শন করলেই জানা যাবে কেন বরজটি নষ্ট হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, প্রশিক্ষণের পদ্ধতি সঠিকভাবে অনুসরণ করলে পানের ক্ষতি হওয়ার কথা না। তারপরেও বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।

সর্বশেষ