Cvoice24.com

আমিরাতে প্রবল বর্ষণ, চট্টগ্রাম থেকে দুদিনে ৪ ফ্লাইট বাতিল

সিভয়েস২৪ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:১৭, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
আমিরাতে প্রবল বর্ষণ, চট্টগ্রাম থেকে দুদিনে ৪ ফ্লাইট বাতিল

তুমুল বৃষ্টি ও ঝড়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) দুবাই অচল হয়ে পড়েছে। বিমানবন্দরে ফ্লাইট অবতরণ করতে পারছে না। আর এই রেকর্ড বৃষ্টিপাতের ফলে গত দুইদিনে চট্টগ্রাম থেকে দুবাইগামী এবং দুবাই থেকে চট্টগ্রামমুখী মোট ৪টি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সিভয়েস২৪-কে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন তসলিম আহমেদ। 

তিনি বলেন, ‘আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল পর্যন্ত এয়ার অ্যারাবিয়ার একটি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। যেটি শারজাহ থেকে আসার কথা ছিলো। তবে ফ্লাই দুবাইয়ের একটি ফ্লাইট সকালে দুবাই থেকে চট্টগ্রামে এসে পৌঁছেছে।’

‘এছাড়া, গতকাল (বুধবার ১৭ এপ্রিল) এয়ার অ্যারাবিয়ার দুটি ফ্লাইট শারজাহ থেকে এবং ফ্লাই দুবাইয়ের একটি ফ্লাইট দুবাই থেকে চট্টগ্রামে আসার কথা থাকলেও তিনটি ফ্লাইটই বাতিল হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট ৪টি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে।' যোগ করেন তিনি।

বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত বিমানবন্দর বলে পরিচিত দুবাইয়ে মঙ্গলবার থেকেই ফ্লাইট চলাচল ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। মূলত ঝড়ো বাতাসের কারণে বিমানবন্দরটিতে ফ্লাইট ওঠা-নামায় বিঘ্ন ঘটছে। এ অবস্থায় একের পর এক আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বাতিল হচ্ছে, অথবা শিডিউল পরিবর্তন করতে বাধ্য হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে দুবাই বিমানবন্দরের এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘বৃষ্টির কারণে পানি জমে যাওয়ায় ফ্লাইট বিলম্ব হচ্ছে এবং বিমানবন্দরগামী উড়োজাহাজ অবতরণ করতে পারছে না। আমরা এই কঠিন পরিস্থিতিতে যতটা দ্রুত সম্ভব বিমানবন্দরের কাজকর্ম শুরুর চেষ্টা করছি।’

বৃষ্টি আর ঝড়ের প্রভাব পড়েছে দুবাইয়ের বাইরেও। পুরো সংযুক্ত আরব আমিরাত ও প্রতিবেশী বাইরাইনে বন্যার প্রভাব পড়েছে। সেখানেও বন্যায় জনজীবনে ভোগান্তি দেখা দিয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আজ আরও ঝড় ও শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এ জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের প্রয়োজনে বাসা থেকে কাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ওমান হয়ে ঝড়বৃষ্টি সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনে আঘাত হেনেছে। ওমানে শিশুসহ অন্তত ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে, ১৯৪৯ সালে রেকর্ড রাখার পর থেকে এবার সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে। ১৯৭১ সালে ইউএই গঠন করার পর এটাই বৃষ্টির সর্বোচ্চ রেকর্ড। আবহাওয়া দপ্তর দেশের সব নাগরিককে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে। তাঁদের বন্যাদুর্গত ও জলাবদ্ধ এলাকা এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে।

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়