Cvoice24.com
corona-awareness

চন্দনাইশে এবার বরবটি ক্ষেত নষ্ট করায় পিটিয়ে মারল গরুকে

চন্দনাইশ প্রতিনিধি 

প্রকাশিত: ১৭:৩৬, ২০ জুলাই ২০২১
চন্দনাইশে এবার বরবটি ক্ষেত নষ্ট করায় পিটিয়ে মারল গরুকে

রাউজানে সম্প্রতি বরবটি ক্ষেতের চারা গাছ নষ্ট করার প্রতিবাদ করায় ৮ শতক জমির বরবটি লতা কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। তবে এবার চন্দনাইশে হয়েছে ঠিক তার উল্টো ঘটনা। বরবটি ক্ষেত নষ্ট করায় কোরবানির বাজারে বিক্রি করার জন্য ঘরে পালিত একটি গরুকে পিটিয়ে মেরেছে জমির মালিক।

গতকাল সোমবার (১৯ জুলাই) বিকাল ৫টার দিকে দোহাজারী পৌরসভার হাতিয়াখোলা এলাকায় লালুটিয়া ছড়ার পাশে এঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার দোহাজারী পৌরসভার হাতিয়াখোলা গ্রামের মৃত ফজল করিমের ছেলে বাদশা মিয়া (৬০) কোরবানির বাজারে বিক্রির জন্য পালিত একটি ষাঁড় গরু গত সোমবার (১৯ জুলাই) দুপুরে জমিতে ঘাস খাওয়ার খেতেহাতিয়াখোলা লালুটিয়া ছড়ার পূর্ব পাশে খালি জমিতে খুঁটি দিয়ে বেঁধে দেয়।

গরুটি ঘাস খাওয়ার সময় বিকাল ৫টার দিকে অসাবধানতাবশত রায়জোয়ারা এলাকার মৃত ছগির আহমদ এর ছেলে আব্দুল মান্নানের (৫০) বরবটি ক্ষেতে পাশে চলে যায়। পরে জমির মালিক আব্দুল মান্নান গরুটি জমির পার্শ্ববর্তী সজনে গাছের সাথে বেঁধে বাঁশের লাঠি দিয়ে নির্দয় ও নির্মমভাবে গরুটিকে বেধরক পিটাতে থাকে। এক পর্যায়ে গরুটি মারা যায়। গরুটির মালিক বাদশা মিয়ার ছেলে জাহিদুল ইসলাম (১০) স্থানীয় লোকজনের নিকট জানতে পেরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন গরুটি মৃত পড়ে আছে।

গরুর মালিক বাদশা মিয়া বলেন, ‘কোরবান উপলক্ষে বিক্রির জন্য পালিত গরুটি গত রবিবার একজন ক্রেতা ৯০ হাজার টাকা দাম হাঁকিয়েছে। দাম মনপুত না হওয়ায় আমি বিক্রি করি নাই। গরুটি আমার একমাত্র সম্বল ছিল। প্রকৃতপক্ষে গরুটি যদি আব্দুল মান্নানের ক্ষেত নষ্ট করেই থাকে তবে সে আমাকে জানাতে পারতো। আমি তার নষ্ট হওয়া ক্ষেতের ক্ষতিপূরণ দিতাম। কিন্তু সে একটি বোবা প্রাণীকে অমানবিকভাবে পিটিয়ে মেরে ফেললো। আমি এঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।’

এব্যাপারে অভিযুক্ত আব্দুল মান্নানের সাথে যোগাযোগ করা হলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমার ক্ষেতে দুই/তিনটি গরু একসাথে প্রবেশ করে ফসল নষ্ট করতে দেখে আমি গরুগুলোকে দৌড়ানি দেই। এসময় অসাবধানতাবশত লাঠির আঘাতে ওই গরুটি মারা যায়। এঘটনায় আমি অনুতপ্ত। গরু মালিককে তার ক্ষতিপূরণ দেবো।

এব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ইস্কান্দার মিয়া বলেন, ‘পিটিয়ে গরু মেরে ফেলার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে একজন গ্রামপুলিশকে পাঠানো হয়। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সে জানায় জমি মালিক আব্দুল মান্নান গরুটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে। একটি বোবা প্রাণীকে এভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলা দুঃখজনক।

এ অমানবিক ঘটনার সাথে জড়িত জমি মালিক রায়জোয়ারা এলাকার মৃত ছগির আহমদের ছেলে আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে চন্দনাইশ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী গরু মালিক হাতিয়াখোলা এলাকার মৃত ফজল করিমের ছেলে বাদশা মিয়া।

চন্দনাইশ থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) মল্লিকা দাশ রায় অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, বাদশা মিয়া নামে এক ব্যক্তি গত সোমবার (১৯ জুলাই) রাতে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
 

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়