Cvoice24.com

কঠোর লকডাউনেও বিয়ে, বাড়ি ফেরার পথে ধরা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৩৮, ২ জুলাই ২০২১
কঠোর লকডাউনেও বিয়ে, বাড়ি ফেরার পথে ধরা

সরকার ঘোষিত কঠোর বিধি-নিষেধের কারণে বিয়ে করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন হিন্দু ধর্মের বর-কনে। কোনও মন্দিরে চুপিসারি বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারতে পারলেও বাড়ি যেতে গিয়ে মুখোমুখি হতে হচ্ছে প্রশাসনের চেক পোস্টে। কেউ কেউ গোপনে অলি গলি ধরে বাড়ি পৌঁছতে পারলেও অনেকে আবার চেক পোস্টে আটকা পরছেন। এমনই এক নব দম্পত্তি হাটাহাজারী বাস স্ট্যান্ডে বসা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মুখোমুখি হয়েছিলেন শুক্রবার সন্ধ্যায়। যদিও তাদের দাবি— সীমিত পরিসরে মাত্র কয়েকজনের উপস্থিতিতে মন্দিরে এই বিয়ের আয়োজন হওয়ায় তারা রেহাই পান আদালতের জরিমানা থেকে।

ঘটনার বিস্তারিত জানিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী ও হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমীন সিভেয়সকে বলেন, ‘কঠোর বিধি-নিষেধের দ্বিতীয় দিনে শুক্রবার দুপুর ২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় হাটহাজারী বাস স্ট্যান্ডে চেক পোস্ট বসিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার করা হয়। প্রত্যেক গাড়ি ও মানুষকে রাস্তায় বের হওয়ার কারণ জানাতে হয়েছে। সন্ধ্যা ৬টার দিকে আমাদের দেখে একটি সিএনজি অটোরিকশা দ্রুত চলে যেতে চাইলে তাকে আমরা আটক করি। এসময় সেখানে একজন নববধু ও বরকে বিয়ের সাজে দেখতে পাওয়া যায়। একই গাড়িতে চালক ছাড়াও আরও দুজন তাদের স্বজন ছিলেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘নব বিবাহিত দম্পত্তি জানান, বিয়ের লগ্ন থাকায় চিকনদণ্ডির একটি মন্দিরে কয়েকজনের উপস্থিতিতে তারা বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে পৌরসভার বাড়ৈ পাড়ার বাড়িতে যাচ্ছিলেন। এসময় আগামী সাত দিন বাড়ি থেকে বের হবে না এমন প্রতিশ্রুতিতে তাদের বিয়ের বিষয়টি মানবিক বিবেচনায় জরিমানা ছাড়া ছেড়ে দেওয়া হয়।’ 

এর আগে, বৃহস্পতিবার রাতে অ্যাম্বুল্যান্সে করে নগরের বহদ্দারহাটে চকবাজার থেকে নতুন ব্রিজ যাওয়ার পথে ট্রাফিক সার্জেন্টের হাতে আটক হন ১২ নারী-পুরুষ। পরে অ্যাম্বুলেন্স চালককে মামলা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়