Cvoice24.com

হাটহাজারীতে ছুরিকাঘাতে যুবকের হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন, আসামি গ্রেপ্তার

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:১৬, ২ অক্টোবর ২০২২
হাটহাজারীতে ছুরিকাঘাতে যুবকের হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন, আসামি গ্রেপ্তার

গ্রেপ্তার মো. পারভেজ।

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে যুবককে হত্যার উদ্দেশে ছুরিকাঘাতে আহত ও হাতের কব্জি বিচ্ছিন্নের ঘটনায় করা মামলার পলাতক আসামি মো. পারভেজকে (২৩) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

শনিবার (১ অক্টোবর) সকালে হাটহাজারী উপজেলার হাটহাজারী মাদ্রাসার সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার মো. পারভেজ ওই উপজেলার মধ্যম পাহাড়তলী এলাকার মো. জামাল ড্রাইভারের ছেলে। 

র‌্যাব জানায়, ভিকটিম মো. হাসানের (৩৪) সঙ্গে আসামি মো. পারভেজের (২৩) পারিপার্শ্বিক বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে অভ্যন্তরীণ কোন্দল চলে আসছিল। গত ১৯ আগস্ট সকালে পারভেজ তার দলবল নিয়ে দেশিয় তৈরি রামদা, কিরিচ, শাবল ও লোহার রড নিয়ে সজ্জিত হয়ে হাসানের বাড়ির সামনে এসে মদ্যপ অবস্থায় অশ্লীল ও অসভ্য ভাষায় উচ্চ স্বরে গালাগাল করতে থাকে। এসময় হাসান ঘর থেকে বের হয়ে তাদেরকে বাড়ির সামনে উশৃঙ্খলতা না করার জন্য নিষেধ করলে আসামিরা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে হাসানের ঘরে প্রবেশ করে। পরে হাসানের শার্টের কলার ধরে গালাগাল ও মারধর শুরু করে। মারধরের একপর্যায়ে পারভেজ তার হাতে থাকা কিরিচ দিয়ে হাসানের মাথায় কোপ মারলে হাসান হাত দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করে। এসময় হাসানের ডান হাতের কব্জি প্রায় ২ টুকরা হয়ে যায় এবং মাথার সামনে ডান পাশে, ডান চোখের উপর, বাম হাতে এবং পিঠে গুরুতর রক্তাক্ত কাটা জখম হয়। অপরাপর আসামিরা হাতে থাকা লোহার রড ও শাবল দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে হাসানের ডান বাহু, পিঠে, ডান হাঁটুতে বাম পায়ে এবং চোখের বাম পাশে আঘাত করে গুরুতর জখম করে। একপর্যায়ে হাসান বেহুশ হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে পারভেজ শ্বাসরোধ করে হত্যার উদ্দেশ্যে হাসানের গলা চেপে ধরে। গুরুতর আহত হাসানের চিৎকারে আশেপাশের লোকজনকে ঘটনাস্থলে আসতে দেখলে আসামিরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন হাসানকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠায়।

পরে এ ঘটনায় হাসান বাদী হয়ে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী মডেল থানায় ঘটনার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত পারভেজ এবং তার ৪জন সহযোগীকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

র‌্যাব আরও জানায়, মামলা দায়েরের পর থেকে আসামিরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছ থেকে গ্রেপ্তার এড়াতে এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যায়। ঘটনার সঙ্গে জড়িত আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাব ছায়াতদন্ত ও গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মামলার এজাহারনামীয় ১ নম্বর পলাতক আসামি মো. পারভেজের অবস্থান জানতে পারে র‌্যাব। পরে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসার সামনে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‍্যাব-৭-এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবছার বলেন, ঘটনার পর থেকে পারভেজ আত্মগোপনে ছিল। পরে তার অবস্থান জানতে পেরে হাটহাজারী মাদ্রাসার সামনে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাসে ওই ঘটনার মামলার এজাহারনামীয় ১ নম্বর পলাতক আসামি বলে স্বীকার করেছে। গ্রেপ্তার পারভেজের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়