Cvoice24.com

চুয়েট শিক্ষার্থীর মোবাইল ছিনতাই, ট্রাফিক সার্জেন্ট কনস্টেবলের ভো দৌঁড়ে ধরা

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৮:৪০, ২৪ নভেম্বর ২০২২
চুয়েট শিক্ষার্থীর মোবাইল ছিনতাই, ট্রাফিক সার্জেন্ট কনস্টেবলের ভো দৌঁড়ে ধরা

ছিনতাইকারী মো. ইমন

ক্লাস শেষ করে বান্ধবীর সঙ্গে বাসায় ফিরছিলেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারিয়া নওশীন। এ সময় দুই বান্ধবী গাড়ি থেকে নেমে কিছুদূর হেঁটে অন্য গাড়িতে উঠার সময় ফারিয়ার ব্যাগের চেন খুলে মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যান এক ছিনতাইকারী। তবে ঘটনাটি অন্যদের চোখ এড়িয়ে গেলেও তা দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট ও এক কনস্টেবলের চোখ এড়িয়ে যেতে পারে নি।

তৎক্ষণাৎ ওই ছিনতাইকারীকে ধরতে পিছন পিছন দৌঁড় দেন দায়িত্বরত সার্জেন্ট মোহাম্মদ নাছরুল্লাহ ও কনস্টেবল মিরাজ। কিছুদূর ধাওয়া করে ওই ছিনতাইকারীকে আটক করে তারা। এসময় তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে চান্দগাঁও থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে নগরের কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটক ওই ছিনতাইকারীর নাম মো. ইমন (২৪)।

দায়িত্বরত সার্জেন্ট মোহাম্মদ নাছরুল্লাহ ভূঁইয়া সিভয়েসকে বলেন, ‘আমি কাপ্তাই রাস্তার মোড়ে দায়িত্ব পালন করছিলাম। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে চুয়েটের দুই শিক্ষার্থী ক্লাস শেষে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় তারা একটি গাড়ি থেকে নেমে অন্য একটি গাড়িতে ওঠার সময় ফারিয়া নামে ওই শিক্ষার্থীর ব্যাগ থেকে মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায় এক ছিনতাইকারী। দ্রুত আমি এবং কনস্টেবল মিরাজ ওই ছিনতাইকারীর পিছন পিছন দৌঁড়ে যায়। কিছুদূর ধাওয়া করার পর তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া মোবাইল এবং একটি টিপ ছোরা উদ্ধার করা হয়। পরে ওই শিক্ষার্থীকে মোবাইলটি ফেরত দেওয়া হয়।’

ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মোশারফ হোসেন সিভয়েসকে বলেন, ‘সার্জেন্ট নাছরুল্লাহ এবং কনেস্টবল মিরাজ ধাওয়া করে ওই ছিনতাইকারীকে আটক করে। তারা দুইজনই সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। আটক ওই ছিনতাইকারীর কাছ থেকে একটি ছুরিও উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চান্দগাঁও থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’
 

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়