Cvoice24.com
corona-awareness

চট্টগ্রামের নেতারা কে কোথায় কোরবানি দিচ্ছেন

সিভয়েস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:৪৮, ২০ জুলাই ২০২১
চট্টগ্রামের নেতারা কে কোথায় কোরবানি দিচ্ছেন

করোনাকালীন সময়ে ঘটা করে আয়োজন না থাকলেও চট্টগ্রামের রাজনীতিবিদদের বেশিরভাগই নিজ নিজ এলাকায় কোরবানির ঈদ উদযাপন করবেন। তারা সকালে নিজ নিজ মসজিদে নামাজ শেষে পরে কোরবানির পশু জবাই করবেন। তবে কয়েকজন নেতা করোনার সংক্রমণের কারণে চট্টগ্রামের বাইরে ঈদ করবেন। 

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি এখন স্ত্রীসহ আমেরিকায় কন্যার ফ্লোরিডার বাসায় আছেন। এবার তিনি সেখানেই ঈদ উদযাপন করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ঢাকায় ঈদের নামাজ আদায় করে সরকারি বাসভবনে কোরবানি দিবেন। এরপরের দিন তিনি চট্টগ্রাম আসবেন এবং নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। রাঙ্গুনিয়ার গ্রামের বাড়িতেও তিনি কোরবানি দিবেন।

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ ঈদের দিন নগরের সার্সন রোডের বাসভবনে থেকে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। সন্ধ্যায় নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল নগরের চশমা হিল মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। চশমাহিলস্থ বাসভবনে কোরবানি দিয়ে বিকালে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। 

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী সকালে জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। নগরের পল্টন রোডের বাসভবনে কোরবানি দিবেন।  

চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালাম ঈদের নামাজ আদায় করবেন হাটহাজারীর শিকারপুর গ্রামের বাড়িতে। সেখানে তিনি কোরবানি দিয়ে এলাকাবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। করোনা মহামারীর কারণে বড় কোনো আয়োজন না থাকলেও আত্মীয়-স্বজনসহ বাসায় আগতদের জন্য কোরবানির গোস্ত দিয়ে আপ্যায়নের ব্যবস্থা করেছেন।   

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বোয়ালখালী আসনের এমপি মোছলেম উদ্দীন আহমদ বোয়ালখালীর কধুরখীল গ্রামের বাড়িতে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। সেখানে কোরবানি দিয়ে এলাকাবাসীর সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। এরপর শহরে এসে নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী নগরের বহদ্দারহাট বাড়ির শাহী জামে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। এরপর তিনি বাড়িতে ভাইদের নিয়ে কোরবানি দিবেন। বিকালের পর থেকে দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম এবার নগরের সাবেরিয়াতে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। নগরের বাসায় ও সাতকানিয়ার বাড়িতে কোরবানি দিবেন। 

দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান সাতকানিয়ায় গ্রামের বাড়িতে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। কোরবানিও দেবেন গ্রামের বাড়িতে। 

এদিকে চট্টগ্রামে বিএনপির শীর্ষ নেতারা তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন ঈদের নামাজ শেষে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী কাট্টলীর বাড়িতে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করবেন এবং সেখানে কোরবানি দেবেন। বিকেলে মেহেদিবাগের বাসায় আসবেন। 

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান সহধর্মিণীর অসুস্থতার কারণে বিদেশে অবস্থান করছেন। তিনি এবার সেখানে ঈদুল আজহা উদযাপন করবেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন এবার ঢাকার বাসাতে কোরবানির ঈদ উদযাপন করবেন। 

চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম জমিয়তুল ফালাহ মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় শেষে মাদারবাড়িতে নিজ বাসায় গরু কোরবানি দেবেন। 

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন নগরের বাদশা মিয়া সড়কের আমিরবাগ জামে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। চকবাজার ডিসি রোডে নিজ বাসভবনে গরু কোরবানি করবেন। সেখানে সারাদিন নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। 

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর জমিয়তুল ফালাহ মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করবেন। নগরের বাটালী রোডের বাসভবনে তিনি গরু কোরবানি করবেন। 

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান নগরীর চান্দঁগাও আবাসিকে ঈদ নামাজ আদায় করবেন। এরপর তিনি নিজ সংসদীয় এলাকার জনসাধারণ ও নেতাকর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়