Cvoice24.com

‘সার্ভার ডাউন, কাজ হবে না আজ’

রবিউল রবি, সিভয়েস২৪

প্রকাশিত: ১৩:১৫, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
‘সার্ভার ডাউন, কাজ হবে না আজ’

পাসপোর্ট অফিসের গেটের সামনে অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষের জটলা। তাদের কেউ এসেছেন আনোয়ারা থেকে আবার কেউ লোহাগাড়া। মূল গেটের ভেতরে দায়িত্বরত আনসার এবং পুলিশ সদস্যদের সাথে চলছে তাদের তুমুল বাকবিতণ্ডা। তবে কেউই কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছেন না। গেটের ভেতর থেকে পুলিশ এবং আনসার সদস্যদের বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘সার্ভার ডাউন, আজ হবে না কাজ। আগামীকাল আসেন।’

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) নগরের পাঁচলাইশে অবস্থিত জেলা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে দেখা মিলল এমন চিত্রের।

জানা গেছে, সকাল ৯টা থেকেই সার্ভারের যন্ত্রাংশের ত্রুটির কারণে পাসপোর্টের আবেদন থেকে ডেলিভারি, বন্ধ আছে সব সেবা। কবে নাগাদ সার্ভার জটিলতার সমাধান হবে তা বলতে পারছেন না কেউই। ঢাকা থেকে যন্ত্র আসলে আগামীকাল নাগাদ সার্ভার ঠিক হতে পারে—এমন দাবি করছে কর্তৃপক্ষ।

আনোয়ারা উপজেলা থেকে সকাল ৬টায় রওনা দিয়ে চট্টগ্রাম জেলা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এসেছেন মো. রোকন। সকাল ৮টা থেকে দাঁড়িয়ে থাকলেও এখনো পাসপোর্ট গেট দিয়েও প্রবেশ করতে পারেননি তিনি। তাকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে আজ কার্যক্রম বন্ধ।

মো. রোকন সিভয়েস২৪-কে বলেন, ‘আমরা খেটে খাওয়া মানুষ। সেই আনোয়ারা থেকে আসছি। এতদূর থেকে এভাবে এসে ফিরে যেতে হবে ভেবে কষ্ট হচ্ছে। আনসার সদস্যরা বলছেন সার্ভারে কি যেন সমস্যা তাই আজ সব কার্যক্রম বন্ধ। আগামীকাল আসতে বললো। তবে নিশ্চয়তা নেই কাজ হবে কিনা।’

রোকনের ঠিক পাশেই নাতিসহ লাঠি হাতে দাঁড়ানো ছিলেন পঞ্চাশোর্ধ বৃদ্ধ মমতাজ বেগম। তিনি হজ্ব করতে যাবেন তাই পাসপোর্ট দরকার। লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা থেকে তাই আজ এসেছিলেন আবেদন ফর্ম জমা দিতে।  

তার নাতি ইব্রাহিম সিভয়েস২৪-কে বলেন, ‘দাদিকে নিয়ে এসেছি লোহাগাড়ার চরম্বা থেকে। বৃদ্ধ এই মানুষটাকে নিয়ে এসে এখন বিপদে পড়েছি। কাজ না করেই ফিরে যেতে হবে। ডিজিটাল যুগে এই ভোগান্তি মেনে নেওয়ার নয়। গাড়িভাড়াও গেলো, সাথে কষ্ট ফ্রি।’

সরেজমিনে দেখা যায়, বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টাতেও সার্ভার জটিলতার অবসান হয়নি। সেবাগ্রহীতাদের ভিড় বাড়ছে পাসপোর্ট অফিসের গেটের সামনে। কেউ কেউ বিরক্তি প্রকাশ করছেন, আবার কেউ কেউ তর্ক জুড়ে দিচ্ছেন কর্তব্যরত আনসার এবং পুলিশ সদস্যদের সাথে। এ সময় সেবাগ্রহীতার সাথে দুর্ব্যবহারও করতে দেখা যায় তাদের।

এদিকে, বেলা ১২টা ২০ মিনিটের দিকে একজন আনসার সদস্যকে গেটের বাইরে এসে একটি নোটিশ সাঁটিয়ে দিতে দেখা যায়। জরুরি বিজ্ঞপ্তির ওই নোটিশে লেখা আছে, ‘সার্ভার জটিলতার কারণে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, পাঁচলাইশ, চট্টগ্রামের সকল কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে’— তবে কখন নাগাদ ঠিক হবে তা উল্লেখ করা হয়নি।

দায়িত্বরত আমির নামে এক পুলিশ সদস্য জানান, সকাল ৯টা থেকেই বন্ধ আছে পাসপোর্ট অফিসের সেবা প্রদান। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে গেটের ভেতরে তাই কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। আমাদের অফিসের পাশেই একটি বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার ব্লাস্ট হয়েছে। সেজন্য সার্ভারের যন্ত্রাংশ নষ্ট হয়েছে। ঢাকা থেকে সার্ভার ঠিক করতে লোকজন আসছেন। তারা এলে ঠিক করবেন।

এ বিষয়ে জানতে পাঁচলাইশ পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক তারিক সালমানের মুঠোফোনে কল করা হলে রিসিভ করেন তার ব্যক্তিগত সহকারী শাহাদাত।

তিনি সিভয়েস২৪-কে বলেন, ‘সকাল ৯টা থেকে আমাদের সার্ভার ফল্ট করার কারণে সকল কার্যক্রম বন্ধ আছে। মূলত সার্ভারের যন্ত্রাংশ নষ্ট হওয়ায় আজ কাউকেই সেবা প্রদান করা যায়নি।’

কখন নাগাদ সমাধান হতে পারে? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘যে যন্ত্রাংশ নষ্ট হয়েছে তা ঢাকা থেকে নিয়ে আসা হচ্ছে। যন্ত্রাংশ এলে আমাদের টেকনিশিয়ানরা কাজ করবে সমাধানে। আশা করা যাচ্ছে আগামীকাল নাগাদ ঠিক হবে।’

সিভয়েস২৪ডটকম/আরআর

সর্বশেষ