Cvoice24.com

সাতকানিয়ায় ডাকাত ধরে পুলিশে দিল ইউপি চেয়ারম্যান

সাতকানিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৭:২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২
সাতকানিয়ায় ডাকাত ধরে পুলিশে দিল ইউপি চেয়ারম্যান

সাতকানিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে কেঁওচিয়া ইউনিয়নের আমতল এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ভুজপুরের আজিমপুর আদর্শগ্রাম এলাকার মো. এজাহার মিয়ার ছেলে মো. এরশাদ (৪০), পাবর্ত্য জেলা বান্দরবানের আলীকদমের সিলটি পাড়ার মৃত শামসুল আলমের ছেলে নুরুল কবির (৩১) ও কক্সবাজার জেলার ঈদগাঁও নাপিতখালী এলাকার আবদুল্লাহর ছেলে  মো. হাবিব (১৯)। 

কেঁওচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ওচমান আলী জানান, মঙ্গলবার রাতে উপজেলার দস্তিদার হাট এলাকায় অপরিচিত এক লোকের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় জিজ্ঞাসাবাদ করি। সে প্রথমে উল্টাপাল্টা তথ্য দিলেও এক পর্যায়ে তার কয়েকজন সহযোগিসহ এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে। তখন তাকে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দিই। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আটক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার স্বীকারোক্তিমতে অন্য ডাকাত সদস্যদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান পরিচালনা করে।  

পুলিশ জানান, মঙ্গলবার রাতে  আমতল এলাকায় একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ পিছু ধাওয়া করে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ২ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে।

সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেক মোহাম্মদ আবদুল হান্নান জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে ২টি ধারালো অস্ত্র ও তালাকাটার যন্ত্র ও ডাকাতদের ব্যবহৃত পিকআপটি জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা পেশাদার ডাকাত। এদের মধ্যে এরশাদের বিরুদ্ধে ভুজপুর, ফটিকছড়ি, সীতাকুণ্ড ও নগরীর ডবলমুরিং থানায় ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে ৬টি মামলা রয়েছে। নুরুল কবিরের বিরুদ্ধে রামু ও চান্দগাঁও থানায় ৪টি মামলা রয়েছে। তারা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে সাতকানিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।


 

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়