Cvoice24.com

এবার হলে ফেরার পথে চবি শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

চবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:২৯, ১ জুলাই ২০২২
এবার হলে ফেরার পথে চবি শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি

শাটল ট্রেনে এক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনার রেশ না কাটতেই ফের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) আরেক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এবারের ঘটনা ক্যাম্পাসের অদূরেই রেলক্রসিং সংলগ্ন পশ্চিম পট্টি এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সোয়া নয়টার দিকে ঘটেছে।

অভিযুক্তের নাম পরিচয় কিছু জানা যায়নি। তবে বখাটে ছেলেটির বয়স আনুমানিক ১৫/১৬ বছর হবে। 

জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী টিউশন করিয়ে হল ফেরার সময় এক বখাটে ধর্ষণচেষ্টা করে। এসময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে বখাটে ভুক্তভোগীর মোবাইল ফোন নিয়ে দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করে। একপর্যায়ে এলাকাবাসী বখাটেকে ধরে মারধর করে। অভিযোগ উঠেছে এলাকাবাসী বখাটেকে মারধর করে হাসপাতালে পাঠানোর কথা বলে সরিয়ে দেয়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ইতিহাস বিভাগের ছাত্র শাহজালাল শাহীন বলেন, আমি আর আমার ফ্রেন্ড সাড়ে ৯টার দিকে বাসার উদ্দেশ্য আসছিলাম। পথিমধ্যে একটা মেয়ে রাস্তার পাশে কান্না করছিল। মেয়েটিকে বিষয়টি পুলিশকে বিষয়টি না জানানোর জন্য জোর করছিলেন স্থানীয়রা। সামনে গিয়ে দেখি মেয়েটি আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।

কান্নার কারণ জিজ্ঞেস করলে আপুটি তখন বললেন, টিউশন করে ফেরার পথে এক বখাটে যুবক শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। কিন্তু আপুটির চিৎকারে আশেপাশের মানুষের উপস্থিতি টের পেয়ে ছেলেটি আপুটির ফোন নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে বখাটে ছেলেটিকে উত্তম মধ্যম দিয়ে এলাকাবাসীরা হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় আমি এক সহকারী প্রক্টরকে ফোন দিলে ওনারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, ঘটনাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের এরিয়ার বাহিরে। আমরা শোনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে বখাটে ছেলেটাকে পাওয়া যায়নি। আমাদের একজন সহকারী প্রক্টর সার্বক্ষণিক ভুক্তভোগী ছাত্রীর সহপাঠীদের সাথে যোগাযোগ রেখেছে, যাতে কোনো সমস্যা না হয়। মেয়েটি যদি থানায় অভিযোগ কিংবা মামলা করে আমরা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবো।

এর আগে মঙ্গলবার চট্টগ্রামের বটতলী রেলওয়ে স্টেশনে শাটল ট্রেনে বিশ্বিবদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মো. বাবুল (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে রেলওয়ে থানা পুলিশ।

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়