Cvoice24.com

চট্টগ্রামের ১০ হাজার এতিম দুস্থ মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিল আওয়ামী লীগ

সিভয়েস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯:৪৭, ১৫ আগস্ট ২০২২
চট্টগ্রামের ১০ হাজার এতিম দুস্থ মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিল আওয়ামী লীগ

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রামে ১০ হাজার এতিম ও দুস্থ মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে মহানগর আওয়ামী লীগ। নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজম নাছির উদ্দিনের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে কাজীর দেউরির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার থেকে এলাকায় এলাকায় এসব খাবার পৌঁছে দেয় নেতাকর্মীরা। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত নিজে উপস্থিত থেকে পুরো কার্যক্রম তদারকি করেন আজম নাছির উদ্দিন।

খাবার বিতরণের কাজ তদারকি করছেন আ জ ম নাছির

জানা গেছে, ওয়ার্ড পর্যায় থেকে বিভিন্ন এতিমখানা, মাদ্রাসা, আশ্রমের তালিকা করে দলীয় নেতাকর্মীদের মাধ্যমে ৯টি গাড়িতে করে খাবার পৌঁছে দেয়া হয় পর্যায়ক্রমে। এর বাইরে সুবিধাবঞ্চিত পথ শিশুদের নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদেরও এই কার্যক্রমের আওতায় খাবার পৌঁছে দেয়া হয়। এছাড়াও শহরের বিভিন্ন মাজারেও খাবার পাঠানো হয়।

রবিবার (১৪ আগস্ট) রাত থেকে ২ জন বাবুর্চী ৪০ জন সহকারী নিয়ে এসব খাবার তৈরি করতে কাজ করেন। পরদিন সকাল ৯টা থেকে এসব খাবার প্যাকেট করে এলাকায় এলাকায় পাঠানো হয়। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই বিলিবন্টনের কাজ চলে। এই পুরো সময় সেখানে উপস্থিত থেকে পুরো কর্মসূচি তদারকি করেন আজম নাছির উদ্দিন।

প্যাকেটিং হচ্ছে খাবার

কাদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়েছে এই প্রশ্নের জবাবে আজম নাছির উদ্দিন সিভয়েসকে বলেন, ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাদের সহযোগিতায় শহরের বিভিন্ন এতিমখানা, মাদ্রাসা, অনাথ আশ্রম, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, সরকারি শিশু কিশোর পুনর্বাসন কেন্দ্রের তালিকা করে এসব খাবার বিতরণ করা হয়েছে। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার থেকে এসব খাবার পৌঁছে দেয়া হয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলোতে। আমাদের নেতাকর্মীরাই এই ডিস্ট্রিবিউশনের কাজ করেছে। ৯টি গাড়িতে করে সকাল ১১টা থেকে ২টা পর্যন্ত এসব খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

খাবার বিতরণে কাজ করা তেমনই একজন কর্মী চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সদস্য নেওয়াজ খান । সিভয়েসকে তিনি বলেন, ‘সকাল থেকে এসব খাবার প্যাকিং করা, বিতরণ করা সবই অনেকটা একার হাতে সামলেছেন আজম নাছির উদ্দিন ভাই। এই প্রচণ্ড গরমের মধ্যে পুরো সময়টা তিনি কিচেনেই ছিলেন। যেখানে আমরাও একটানা কিচেনে থাকতে পারছিলাম না। দলের সিনিয়র নেতাদের কয়েকজন বিতরণের সময় এসে একটা ছবি তুলে চলে গেছেন। সেখানে তিনি একেবারেই ব্যতিক্রম ছিলেন।’

ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারের অনুষ্ঠান শেষে আজম নাছির উদ্দিন যান বাগমনিরাম ওয়ার্ডে। সেখানে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর বাসার সামনে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ওয়ার্ডের কর্মীদের পরিবারে খাবার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সাবেক মেয়র আজম নাছির উদ্দিন। সেখানে ওয়ার্ডের ৩০০ নেতাকর্মীর বাসায় তাদের পরিবারের জন্য খাবার পাঠানো হয় দলের পক্ষ থেকে। 

কার্যক্রমটির সাথে সম্পৃক্ত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও সাংষ্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু সিভয়েসকে বলেন, ‘কর্মীদের পরিবারের সাথে দলের বন্ডিং তৈরি করার লক্ষ্য নিয়েই আমরা এটা করেছি। এসব প্রোগ্রামগুলোতে আমাদের কর্মীরা বিভিন্ন জায়গায় যায়, পরিবারের লোক এসবের বাইরে থাকে। কিন্তু রাজনৈতিক কর্মীদের পরিবারেরও একটা সম্পৃক্ততা ঝুঁকি থাকে, ১৫ আগস্ট তার একটা বড় উদাহরণ। সেটাকে ছোট পরিসরে সম্মান জানানোর জন্যই কর্মীদের পরিবারের সদস্যদের জন্য খাবার পাঠানোর এই কর্মসূচি আমরা নিয়েছি।’

এসব কর্মসূচি ছাড়াও দিনভর নগরের বিভিন্ন এলাকায় শোক দিবসের ১২টি কর্মসূচিতে অংশ নেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজম নাছির উদ্দিন।

সিভয়েস/এআরটি

Add

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়